বদরুদ্দোজা, সৈয়দ


বদরুদ্দোজা, সৈয়দ  (১৮৯৮-১৯৭৪)  কলকাতার মেয়র (১৯৪৩-৪৪), রাজনীতিবিদ এবং সংসদ সদস্য। সৈয়দ বদরুদ্দোজা ছিলেন খিলাফত এবং আইন অমান্য আন্দোলন এর একজন সক্রিয় কর্মী। তিনি হিন্দু-মুসলিম ঐক্যের একনিষ্ঠ সমর্থক ছিলেন। অবশ্য পরে তিনি জিন্নাহর নেতৃত্ব মেনে নিয়ে বেঙ্গল মুসলিম লীগের একজন মুসলিম জাতীয়তাবাদী কর্মীতে পরিণত হন। বিশ শতকের প্রথমদিকে উপনিবেশিক শাসন বিরোধী আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী তরুণ দেশপ্রেমিকদের মধ্যে তিনি অন্যতম। তিনি  চিত্তরঞ্জন দাশসুভাষচন্দ্র বসু এবং  হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর সঙ্গে কাজ করেন। কলকাতার হলওয়েল মনুমেন্ট অপসারণে সুভাষ বসু ও অন্যান্যদের সঙ্গে বদরুদ্দোজা সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেন। কলকাতা কর্পোরেশন এর মেয়র হিসেবে দুর্ভিক্ষ প্রতিরোধ ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে সৈয়দ বদরুদ্দোজা বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। দুর্ভিক্ষের সময় নগরের দুর্ভিক্ষ পীড়িতদের জন্য তিনি একটি ত্রাণ তহবিল গঠন করেন।

বদরুদ্দোজা ভারত ও বাংলা বিভাজনের বিরুদ্ধে অবস্থান গ্রহন করেন। স্বাধীন ও অবিভক্ত বাংলা প্রতিষ্ঠায় তিনি শরৎ বসু-সোহরাওয়ার্দী পরিকল্পনা সমর্থন করেন। ১৯৪৭ সালে বাংলা বিভক্ত হওয়ার পর তিনি বেশ কয়েকবার পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা ও ভারতীয় লোকসভার সদস্য নির্বাচিত হন। রাজনৈতিক মতবাদের জন্য তাঁকে কয়েকবার কারারুদ্ধ করা হয়। ১৯৭৪ সালের ১৮ নভেম্বর মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত সৈয়দ বদরুদ্দোজা এক আপোষহীন রাজনৈতিক জীবন যাপন করেন।  [মোহাম্মদ আলী সৈয়দ]