ঔষধি লতাগুল্ম


ঔষধি লতাগুল্ম (Medicinal Herb)  রোগ নিরাময়কারী হিসেবে ব্যবহার্য উদ্ভিদ অথবা উদ্ভিদজাত দ্রব্য। ঔষধি লতাগুল্মের এমন বিশেষ কিছু গুণ রয়েছে যা চিকিৎসার গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হিসেবে কাজ করে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য কতিপয় অ্যালকালয়েড (alkaloid), গ্লাইকোসাইডস (glycosides), ট্যানিন (tannin), উদ্বায়ী তৈল, খনিজ এবং ভিটামিন, যা গৌণ বিপাকজাত দ্রব্য হিসেবে উদ্ভিদ কোষ বা কলায় উপস্থিত থাকে।

কতিপয় ঔষধি লতাগুল্ম
বিষকাঁটালি
বাসক
কুরচি
নীল নিশিন্দা

ব্যাপক অর্থে ঔষধি লতাগুল্মের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত এমন সব উদ্ভিদ বা উদ্ভিদের অংশ যা সরাসরি অন্তঃভরণ, ঘন নির্যাস, টিনকচার (tincture), মালিশ ইত্যাদি হিসেবে ব্যবহূত হয় এবং উদ্ভিদের নির্যাস (extract) যা সরাসরি ঔষধ হিসেবে বা ঔষধ তৈরীর উপাদান হিসেবে ব্যবহার্য। এ ছাড়া কতক খাদ্য, মসলা এবং ঘ্রাণযুক্ত উদ্ভিদ আধুনিক অথবা সনাতন চিকিৎসা পদ্ধতিতে ব্যবহূত হয়।

বিশেষ গুণাবলি থাকলেও ঔষধি লতাগুল্ম যে বিশেষ আকৃতির অথবা কোনো বিশেষ স্থানে জন্মায় এমনটি নয়। বস্ত্তত, এসব উদ্ভিদ স্বাভাবিক অন্যান্য উদ্ভিদের মতোই এবং একই পরিবেশে জন্মায় ও অন্যান্য গাছপালার ন্যায় স্বাভাবিকভাবে বিস্তৃত। একটি সাধারণ আবাসে অন্যান্য বহু উদ্ভিদের পাশাপাশি দু’চারটি ঔষধি লতাগুল্ম থাকতে পারে। তবে অন্যান্য উদ্ভিদ থেকে আকার আকৃতিগত তেমন বৈশিষ্ট্যময় না হলেও, ঔষধি গুণ থাকার কারণে অন্যান্যদের তুলনায় সেগুলি স্বতন্ত্র।

সনাতন চিকিৎসা পদ্ধতির ঔষধি লতাগুল্মের তালিকায় (Materia Medica) এ উপমহাদেশের প্রায় ২,০০০ উদ্ভিদের নাম উল্লেখ রয়েছে। এর মধ্যে ৪৫০ থেকে ৫০০টি উদ্ভিদ প্রজাতি বাংলাদেশে জন্মায়। আয়ুর্বেদিক, ইউনানি, হেকিমি এবং অন্যান্য লোকজ চিকিৎসায় বাংলাদেশে ভেষজ ঔষধের ব্যবহার বেশ ব্যাপক।  [আবদুল গনি]

আরও দেখুন গুল্ম; ভেষজ উদ্ভিদ