ঈষৎলোনা পানির পরিবেশ


ঈষৎলোনা পানির পরিবেশ (Brackish-water Environment)  সমুদ্রের সঙ্গে মিশে যাওয়া নদীসমূহের মোহনা বা তার নিম্নাংশের পরিবেশ। খোলা সমুদ্রে লবণাক্ততা ৩৩-৩৭%, স্বাদুপানিতে ০.৫ শতাংশের কম এবং মোহনায় অর্থাৎ ঈষৎলোনা পানিতে ০.৫-৩৫%। তিনটি বৃহৎ নদী  গঙ্গাব্রহ্মপুত্র ও  মেঘনা ভারত ও বাংলাদেশের বিস্তৃত অঞ্চল ধুয়ে প্রচুর পরিমাণ স্বাদুপানি (বার্ষিক প্রায় ১১০০ ঘন কিমি) বঙ্গোপসাগরে বহন করে নেয়।  বঙ্গোপসাগর, বিশেষত বাংলাদেশের উপকূলীয় জলভাগের মহাসামুদ্রিক পরিস্থিতি তিনটি মূল প্রভাবকের অধীন: ১. মৌসুমি বায়ু; ২. হিমালয় পর্বতের সঙ্গে মৌসুমি জলবায়ুর মিলনের ফলে বৃষ্টিপাত; এবং ৩. নদীপ্রবাহ যা মৌসুমি জলবায়ু ও বৃষ্টিপাতের সঙ্গে সম্পর্কিত। কিন্তু এটাও গুরুত্বপূর্ণ যে ভারত, বাংলাদেশ ও মায়ানমারের প্রধান নদীগুলি বঙ্গোপসাগরে পতিত হয়েছে। এ প্রভাবকগুলি বঙ্গোপসাগরের উত্তরাঞ্চলের ‘ঈষৎলোনা পানির পরিবেশ’ সৃষ্টিতে জোরালো প্রভাব ফেলে, কারণ এগুলি বিভিন্ন অনুপাতে ও বিভিন্ন কালপর্যায়ে পানি সঞ্চালন, লবণাক্ততা, ঘোলাটেভাব, উৎপাদনশীলতা ও তলদেশের প্রকৃতিকে (nature of the bottom) নিয়ন্ত্রণ করে। বিনিময়ে এগুলি দ্বারা উপকূলীয় অঞ্চলে মাছের বিস্তৃতি ও পরিযান প্রভাবিত হয়।  [নূরউদ্দিন মাহমুদ]