অম্ল অববাহিকীয় কাদা


অম্ল অববাহিকীয় কাদা (Acid Basin Clay)   প্রখর থেকে অতিমাত্রিক অম্লস্বাদযুক্ত ধূসর থেকে গাঢ় ধূসর বর্ণের ভারি কাদামাটি। পৃষ্ঠ মৃত্তিকা ধূসর থেকে কালচে ধূসর বর্ণের হলেও ভিত্তিভূমি থেকে খাঁজ ও ফাটলে লাল ও বাদামি বর্ণ ধারণ করে। শুকনা অবস্থায় এ মাটি খুব শক্ত হয় ও এতে ফাটল ধরে। কিছু অঞ্চলে এ মাটিতে  পিট স্তর ও পঙ্কময় অধঃস্তর পরিলক্ষিত হয়। সপ্তাহ দুয়েক জলমগ্ন থাকলে পৃষ্ঠ মৃত্তিকার কটুতা প্রায় ধুয়ে গেলেও পরে শুকিয়ে গেলে আবার প্রচন্ড অম্লযুক্ত হয়ে পড়ে।  অন্তর্মৃত্তিকা তীব্র থেকে অতি তীব্র অম্লযুক্ত। ফাও-ইউনেস্কোর শ্রেণিবিন্যাসে এটিকে Dystric ও Eutric Fluvisols হিসেবে দেখানো হয়েছে। অম্ল অববাহিকীয় কাদা মাটির মধ্যে প্রিজমের মতো কাঠামো ও স্তূপ কাঠামোর সৃষ্টি করে যা ঋতুভেদে শুকিয়ে যায়। বাংলাদেশে অম্ল অববাহিকীয় কাদার মোট এলাকা প্রায় ৩,৮৪,৯৯৪ হেক্টর। প্রধানত হাওর অববাহিকা, বিশেষ করে পূর্ব সুরমা-কুশিয়ারা প্লাবনভূমি, নিম্নতর আত্রাই অববাহিকা, বরেন্দ্রভূমি ও  মধুপুর গড় এবং ব্রহ্মপুত্র ও গঙ্গার প্লাবনভূমি এ শ্রেণির মাটি দিয়ে গঠিত।  [মোঃ খুরশিদ আলম]