মুকিম কাটরা

NasirkhanBot (আলোচনা | অবদান) কর্তৃক ০৪:৪৫, ৫ মে ২০১৪ তারিখে সংশোধিত সংস্করণ (Added Ennglish article link)
(পরিবর্তন) ← পূর্বের সংস্করণ | সর্বশেষ সংস্করণ (পরিবর্তন) | পরবর্তী সংস্করণ → (পরিবর্তন)

মুকিম কাটরা  মুগল আমলে মীর মুকিম কর্তৃক নির্মিত একটি সরাইখানা। বর্তমানে এটি মকিম কাটরা নামে সমধিক পরিচিত। মির্জা মুকিম ও মুকিম কাটরা সম্পর্কে তথ্যের অপ্রতুলতার কারণে খুব বেশি জানা যায় না। ১৬৬০ খ্রিস্টাব্দে মীর জুমলা যখন বাংলার সুবাহদার নিযুক্ত হন এবং তিনি ঢাকায় আসেন ১৬৬১ খ্রিস্টাব্দের শেষে। তখন মীর মুকিম ছিলেন নওয়ারার মুসারেফী (নৌবাহিনীর দারোগা)। মির্জা মুকিম আর মীর মুহম্মদ মুকিম একই ব্যক্তি। মির্জা মুকিমের প্রাসাদ ছিল বর্তমান বঙ্গভবন বা দিলখুশা এলাকায়। তিনি জনকল্যাণে অনেক জলাশয়, পুষ্করিণী খনন ও কাটরা নির্মাণ করেন। সম্ভবত বঙ্গভবনের প্রাঙ্গণের জলাশয়টি ও মতিয়ূর শিশুপার্কের ভিতরের পুকুরটি তাঁর আমলে খনন করা হয়। বর্তমান সময়ের মত পুরানো ঢাকা (বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে অবস্থানের জন্য) মুগল আমলেও ব্যবসা-বাণিজ্যের কেন্দ্র ছিল। তাই মির্জা মুকিম ব্যবসায়ীদের সুবিধার্থে ১৬৬২ খ্রিস্টাব্দেু বর্তমান চকবাজার ও মৌলভী বাজারের মাঝামাঝি স্থানে একটা কাটরা নির্মাণ করেন। এটি বর্তমান কেন্দ্রীয় কারাগারের পূর্ব এবং প্রধান ফটকের পেছনে অবস্থিত ছিল। যদিও বর্তমানে এর কোন চিহ্ন অবশিষ্ট নেই তবুও বর্তমানে এ অংশটি মুকিম কাটরা নামে পরিচিত। মৌলভী বাজারের প্রায় পুরোটা জুড়েই এ কাটরা ছিল বলে পন্ডিতদের ধারণা (Syed Muhammed Taifoor, Glimpses of Old Dhaka, Dacca, 1956)।ু পরবর্তীকালে এ কাটরার ধ্বংসাবশেষের উপর গড়ে ওঠে মৌলভী বাজার। তবে এখনও এর কিছু অংশ মুকিম কাটরা নামে বিদ্যমান রয়েছে।  [গাজী মোঃ মিজানুর রহমান]

গ্রন্থপঞ্জি  নাজির হোসেন, কিংবদন্তির ঢাকা, থ্রি স্টার কো-অপারেটিভ মালটিপারপাস সোসাইটি লি., (তৃতীয় সংস্করণ, ১৯৯৫), ঢাকা, ১৯৭৬ (প্রথম প্রকাশ); মুনতাসীর মামুন, ঢাকা: স্মৃতি-বিস্মৃতির নগরী, বাংলা একাডেমী, ঢাকা, ১৯৯৩; ABM Husain (ed.), Architecture, Vol. 2, Asistic Society of Bangladesh , Dhaka , 2007.