সিরাত-ই-ফিরুজশাহী

NasirkhanBot (আলোচনা | অবদান) কর্তৃক ০৫:১০, ৫ মে ২০১৪ তারিখে সংশোধিত সংস্করণ (Added Ennglish article link)
(পরিবর্তন) ← পূর্বের সংস্করণ | সর্বশেষ সংস্করণ (পরিবর্তন) | পরবর্তী সংস্করণ → (পরিবর্তন)

সিরাত-ই-ফিরুজশাহী  সুলতান  ফিরুজ শাহ তুগলক-এর রাজত্বকালে ৭৭২ হিজরি / ১৩৭০ খ্রিস্টাব্দে অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তির রচিত একটি গ্রন্থ। কোন কোন পন্ডিতের মতে সুলতান ফিরুজ শাহ তুগলকের নির্দেশে গ্রন্থটি রচিত, আবার অন্যান্যরা মনে করেন যে সুলতান নিজেই গ্রন্থটির রচয়িতা।

সুলতান ফিরুজ শাহ তুগলকের রাজত্বের প্রথম বিশ বছরের নির্ভরযোগ্য ইতিহাস সিরাত-ই-ফিরুজশাহীতে পাওয়া যায়। এ গ্রন্থে সুলতান কর্তৃক দুবার বাংলা অভিযানের বিবরণ রয়েছে এবং এ বিবরণ বরণী ও আফীফ-এর বর্ণনার পরিপূরক তথ্য সরবরাহ করে। সিরাত-ই-ফিরুজশাহীর বর্ণনাদৃষ্টে মনে হয় যে, দিল্লি বাহিনী কর্তৃক  একডালা দুর্গ অবরোধকালে ঐতিহাসিক নিজেই ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। গ্রন্থাকার প্রদত্ত ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার বিবরণ থেকে বাংলার জলবায়ু ও প্রাকৃতিক পরিবেশ সম্বন্ধে সম্যক ধারণা জন্মে।

ইতিহাস বর্ণনা ছাড়াও সিরাত ওই যুগের সরকার, প্রশাসন এবং শিক্ষা ও সংস্কৃতি বিষয়ে বিস্তারিত জ্ঞানের আধার। তোবরা এবং মীরাট থেকে সুলতান কর্তৃক তাঁর রাজধানী ফিরুজাবাদে সম্রাট অশোকের দুটি স্তম্ভ স্থানান্তরের বিবরণও এ গ্রন্থে স্থান পেয়েছে। বাঁকিপুর ওরিয়েন্টাল পাবলিক লাইব্রেরিতে সিরাত-ই-ফিরুজশাহীর একটি পান্ডুলিপি রক্ষিত আছে।  [আবদুল করিম]