রহমান, আবুল ফজল জীয়াউর

Mukbil (আলোচনা | অবদান) কর্তৃক ১৪:৩৬, ৮ মার্চ ২০১৫ তারিখে সংশোধিত সংস্করণ
(পরিবর্তন) ← পূর্বের সংস্করণ | সর্বশেষ সংস্করণ (পরিবর্তন) | পরবর্তী সংস্করণ → (পরিবর্তন)
আবুল ফজল জীয়াউর রহমান

রহমান, আবুল ফজল জীয়াউর (১৯২৬-১৯৭১)  চিকিৎসক, সামরিক কর্মকর্তা, মুক্তিযুদ্ধে শহীদ। তিনি ১৯২৬ সালের ২ ফেব্রুয়ারি নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার থানার নওগাঁ গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।

পিতা মোহাম্মদ মোসলেউদ্দিন ভূঁইয়া নারায়ণগঞ্জ জেলা বোর্ডের চেয়ারম্যান ছিলেন। মাতা বেগম মাসুমা চৌধুরী। জীয়াউর রহমান সন্দ্বীপের কাঠঘর হাইস্কুল থেকে ১৯৪৪ সালে ম্যাট্রিক, ১৯৪৬ সালে চট্টগ্রাম কলেজ থেকে আইএসসি পাস করেন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ থেকে তিনি এমবিবিএস ডিগ্রি লাভ করেন।

জীয়াউর রহমান ১৯৪৯ সালে পাকিস্তান আর্মি মেডিক্যাল কোরে তাঁর কর্মজীবন শুরু করেন। তিনি রংপুর ও ঢাকা সিএমএইচ-এ চিকিৎসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৬৩ সালে তিনি লেফটেন্যান্ট কর্নেল পদে উন্নীত হন। তিনি ১৯৬৮ সালে সিলেট মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ও সুপারিনটেন্ডেন্ট নিযুক্ত হন। তিনি ১৯৬৯-৭০ সালে ফ্যাকাল্টি অব মেডিসিন-এর ডীন ছিলেন। তাঁর উদ্যোগে সিলেট মেডিক্যাল কলেজের নতুন ভবন, ছাত্রাবাস, শিক্ষকদের বাসগৃহ নির্মাণ ও হাসপাতাল পুনর্গঠনের কাজ শুরু হয়।

১৯৭১ সালে তাঁকে পাকিস্তানের ইসলামাবাদে বদলি করা হয়। কিন্তু তিনি সে আদেশ উপেক্ষা করে দেশে থেকে যান। মুক্তিযোদ্ধাদের সহায়তা করার অভিযোগে পাকিস্তান সেনাবাহিনী তাঁকে সপরিবারে গৃহান্তরীণ করে রাখে। ১৪ এপ্রিল পাকিস্তানি সৈন্যরা তাঁকে তাঁর বাসভবন থেকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর তাঁর কোনো খোঁজ পাওয়া যায় নি।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ডাকবিভাগ ১৯৯৫ সালের ১৪ ডিসেম্বর শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে এ.এফ জীয়াউর রহমানের নামে স্মারক ডাকটিকিট প্রকাশ করে।  [বায়জীদ খুরশীদ রিয়াজ]