গোর্খা

NasirkhanBot (আলোচনা | অবদান) কর্তৃক ০২:২৫, ৫ মে ২০১৪ তারিখে সংশোধিত সংস্করণ (Added Ennglish article link)
(পরিবর্তন) ← পূর্বের সংস্করণ | সর্বশেষ সংস্করণ (পরিবর্তন) | পরবর্তী সংস্করণ → (পরিবর্তন)

গোর্খা  নেপালের গন্ডকি এলাকার ৬টি জেলার মধ্যে একটি। অন্নপূর্ণা হিমল ও গোর্খা হিমলের অংশবিশেষ নিয়ে গোর্খা গঠিত। জাতি হিসেবে আধুনিক নেপাল গঠন, গোর্খা দুর্বার, গোর্খা মন্দির, গোর্খালিস এবং আরও অনেক আর্থ-সামাজিক ধর্মীয় পৌরাণিক কাহিনী মিলে নেপালে গোর্খাদের একটি সমৃদ্ধ ইতিহাস রয়েছে।

আন্তর্জাতিকভাবে গোর্খা একটি সাধারণ পরিভাষা। যেসকল নেপালি বিশ শতকের শুরুতে পেশাজীবী ভাড়াটে সৈন্য হিসেবে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়েছিল তাদেরকে গোর্খা বলা হতো। এক সময় বেঙ্গল আর্মিতে একটি গোর্খা রেজিমেন্ট ছিল। বেঙ্গল সেনাবাহিনীর সদস্য হিসেবে গোর্খা সৈন্যরা প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে বীরত্বের সঙ্গে যুদ্ধ করে। গোর্খা সৈন্যরা তাদের বিশ্বস্ততা, সাহস ও নিষ্ঠার জন্য সুবিদিত। ভাড়াটে সৈন্য হিসেবে তারা ব্রিটিশ সেনাবাহিনীতে হংকং, ব্রুনেই, মালয়েশিয়া ও যুক্তরাজ্যে কাজ করেছে।

আর্জেন্টিনার কাছ থেকে ফকল্যান্ড পুনর্দখল করতে ব্রিটিশ সেনাবাহিনীতে গোর্খা সৈন্যরা অগ্রণী ভূমিকা পালন করে। বাংলার লোককাহিনিতে গোর্খা এমন একজন দুর্ধর্ষ ব্যক্তি যে তার প্রভুর জন্য যে কোন ত্যাগ স্বীকার করতে পারে।  [সিরাজুল ইসলাম]