চক্রপাণি দত্ত

NasirkhanBot (আলোচনা | অবদান) কর্তৃক ০২:৩১, ৫ মে ২০১৪ তারিখে সংশোধিত সংস্করণ (Added Ennglish article link)
(পরিবর্তন) ← পূর্বের সংস্করণ | সর্বশেষ সংস্করণ (পরিবর্তন) | পরবর্তী সংস্করণ → (পরিবর্তন)

চক্রপাণি দত্ত (১১শ শতক)  আয়ুর্বেদিক চিকিৎসক ও  সংস্কৃত পন্ডিত। একাদশ শতকের শেষভাগে  বরেন্দ্র অঞ্চলের অন্তর্গত ময়ূরেশ্বর গ্রামে লোধ্রবলী কুলীন বংশে তাঁর জন্ম বলে মনে করা হয়। তাঁর পিতা নারায়ণ দত্ত ছিলেন গৌড়রাজ নয়পালের (১০৪০-৭০ খ্রি) সমসাময়িক এবং তাঁর রন্ধনশালার অধ্যক্ষ।

চক্রপাণির গুরুর নাম নরদত্ত। তিনি গৌড়রাজের সভাসদ ছিলেন। প্রাচীন চিকিৎসা বিষয়ে চক্রপাণি রচিত তিনিটি প্রসিদ্ধ গ্রন্থ হলো: চিকিৎসাসংগ্রহ, দ্রব্যগুণ ও সর্বসারসংগ্রহ। প্রথম গ্রন্থটি ‘চক্রদত্ত’ নামে সমধিক প্রসিদ্ধ। এতে চরকন্যাস, বৃদ্ধসুশ্রুত প্রভৃতি কয়েকটি লুপ্তপ্রায় প্রাচীন আয়ুর্বেদগ্রন্থের বিশেষ বিশেষ অংশ উদ্ধৃত হয়েছে। চক্রপাণি বিখ্যাত চরকসংহিতার ওপর চরকতত্ত্বপ্রদীপিকা এবং সুশ্রুতের ওপর ভানুমতী নামক দুখানি পান্ডিত্যপূর্ণ টীকা রচনা করে যথাক্রমে ‘চরকচতুরানন’ ও ‘সুশ্রুতসহস্রনয়ন’ উপাধি লাভ করেন।

চিকিৎসাশাস্ত্র ব্যতীত চক্রপাণি ব্যাকরণ ও  ন্যায়দর্শন সম্পর্কেও গ্রন্থ রচনা করেছেন। ব্যাকরণতত্ত্বচন্দ্রিকা  তাঁর একটি  ব্যাকরণ গ্রন্থ। গৌতমের ন্যায়সূত্রের ওপর তিনি একটি টীকা রচনা করেছিলেন বলে জানা যায়। শব্দচন্দ্রিকা নামে তাঁর একটি কোষগ্রন্থও আছে।  [মনোরঞ্জন ঘোষ]