"মুলা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(Added Ennglish article link)
 
 
১ নং লাইন: ১ নং লাইন:
 
[[Category:বাংলাপিডিয়া]]
 
[[Category:বাংলাপিডিয়া]]
 
[[Image:Radish.jpg|thumb|400px|মুলা]]
 
[[Image:Radish.jpg|thumb|400px|মুলা]]
'''মুলা'''  Cruciferae গোত্রের জনপ্রিয় সবজি, ''Raphanus sativus''। পাতা ভিটামিন ‘এ’, ‘বি’, ও ‘সি’ সমৃদ্ধ।
+
'''মুলা'''  Cruciferae গোত্রের জনপ্রিয় সবজি, ''Raphanus sativus''। পাতা ভিটামিন ‘এ’, ‘বি’, ও ‘সি’ সমৃদ্ধ। মাংসল, খাবার উপযোগী মূলে আছে কিছুটা ভিটামিন ‘সি’, ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস। মুলা নানাভাবে ব্যবহূত হয়, পাতা শাক হিসেবে, মূল মাছ ও অন্যান্য সবজির সঙ্গে তরকারি হিসেবে এবং সালাদে, কখনও আচারে।
  
মাংসল, খাবার উপযোগী মূলে আছে কিছুটা ভিটামিন ‘সি’, ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস। মুলা নানাভাবে ব্যবহূত হয়, পাতা শাক হিসেবে, মূল মাছ ও অন্যান্য সবজির সঙ্গে তরকারি হিসেবে এবং সালাদে, কখনও আচারে।
+
সাধারণত রবি-ফসল হিসেবে চাষ হয়, গ্রীষ্মকালেও কিছুটা ফলানো যায়। চাষাধীন প্রায় ২৪,৩৭২ হেক্টর জমিতে ফলন হয় প্রায় ২,২৩,৩০০ মে টন। নামী ভ্যারাইটির কয়েকটি Red Bombay, Minto Early, Mino Saki। সম্প্রতি বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট তিনটি জাতের মুলা অবমুক্ত করেছে;   তসোকিষান (লম্বা, সাদা মূল), পিংকি (বেশি ঝাঁঝালো, লালচে মূল), দ্রুতি (সাদা, রঙিন, আশু জাত)। [এ.কে.এম মতিয়ার রহমান]  
 
 
সাধারণত রবি-ফসল হিসেবে চাষ হয়, গ্রীষ্মকালেও কিছুটা ফলানো যায়। চাষাধীন প্রায় ২৪,৩৭২ হেক্টর জমিতে ফলন হয় প্রায় ২,২৩,৩০০ মে টন। নামী ভ্যারাইটির কয়েকটি Red Bombay, Minto Early, Mino Saki। সম্প্রতি বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট তিনটি জাতের মুলা অবমুক্ত করেছে;   তসোকিষান (লম্বা, সাদা মূল), পিংকি (বেশি ঝাঁঝালো, লালচে মূল), দ্রুতি (সাদা, রঙিন, আশু জাত)।
 
 
 
[এ.কে.এম মতিয়ার রহমান]  
 
  
 
[[en:Radish]]
 
[[en:Radish]]

১০:১৭, ৫ মার্চ ২০১৫ তারিখে সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণ

মুলা

মুলা  Cruciferae গোত্রের জনপ্রিয় সবজি, Raphanus sativus। পাতা ভিটামিন ‘এ’, ‘বি’, ও ‘সি’ সমৃদ্ধ। মাংসল, খাবার উপযোগী মূলে আছে কিছুটা ভিটামিন ‘সি’, ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস। মুলা নানাভাবে ব্যবহূত হয়, পাতা শাক হিসেবে, মূল মাছ ও অন্যান্য সবজির সঙ্গে তরকারি হিসেবে এবং সালাদে, কখনও আচারে।

সাধারণত রবি-ফসল হিসেবে চাষ হয়, গ্রীষ্মকালেও কিছুটা ফলানো যায়। চাষাধীন প্রায় ২৪,৩৭২ হেক্টর জমিতে ফলন হয় প্রায় ২,২৩,৩০০ মে টন। নামী ভ্যারাইটির কয়েকটি Red Bombay, Minto Early, Mino Saki। সম্প্রতি বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট তিনটি জাতের মুলা অবমুক্ত করেছে;   তসোকিষান (লম্বা, সাদা মূল), পিংকি (বেশি ঝাঁঝালো, লালচে মূল), দ্রুতি (সাদা, রঙিন, আশু জাত)। [এ.কে.এম মতিয়ার রহমান]