হাবিবুল্লাহ, সৈয়দ আবুল মনসুর


হাবিবুল্লাহ, সৈয়দ আবুল মনসুর (১৯১৭-১৯৯৬)  বর্ধমানে জন্মগ্রহণকারী এবং বিশ শতকের চল্লিশের দশকের একজন নেতৃস্থানীয় কমিউনিস্ট কর্মী এবং পরবর্তীকালের বামপন্থি নেতা। সাধারণ্যে মনসুর হাবিব নামে পরিচিত। তিনি ১৯৪৪ সালে বঙ্গীয় প্রাদেশিক কিষাণ সভার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। এর পূর্বে তিনি সর্ব-ভারতীয় কিষাণ সভার যুগ্ম-সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন। মনসুর হাবিব বিখ্যাত তেভাগা আন্দোলন কেন্দ্রীয়ভাবে পরিচালনা করেন।  তেভাগা আন্দোলন-এর পরিপ্রেক্ষিতে তিনি ‘লাঙ্গল যার জমি তার’ শীর্ষক তাঁর বিখ্যাত রচনাটি প্যাম্ফলেট আকারে প্রকাশ করেন।

ভারত বিভাগের পর (১৯৪৭) তিনি পূর্ব-পাকিস্তানে এসে বসবাস শুরু করেন এবং পূর্ব-পাকিস্তান কমিউনিস্ট পার্টির প্রাদেশিক কমিটির সদস্য হন। ১৯৪৯ সালে তিনি গ্রেফতার হন এবং রংপুর জেলে অন্তরীণ থাকেন। পরে তাঁকে রাজশাহী জেলে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে খাপড়া ওয়ার্ডে পুলিশের গুলীবর্ষণে (২৪ এপ্রিল, ১৯৫০) তিনি মারাত্মকভাবে আহত হন। ১৯৫২ সালে তাঁকে পাকিস্তান থেকে বহিষ্কার করা হয়।

ভারতে ফিরে তিনি আবার ভারতীয় কমিউনিস্ট পার্টিতে যোগ দেন। ১৯৬২ সালে বর্ধমান জেলার মন্টেশ্বর থানা নির্বাচনী এলাকা থেকে তিনি পশ্চিমবঙ্গ বিধান সভার সদস্য নির্বাচিত হন। তখন থেকে তিনি পশ্চিমবঙ্গ বিধান সভার স্পিকার, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের আইন ও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রী ছাড়াও আরও অনেক সরকারি পদ অলংকৃত করেন।  [সৈয়দ আলী ইমাম]