স্ট্র্যাচি, স্যার জন


স্ট্র্যাচি, স্যার জন (১৮২৩-১৯০৭)  লেখক, ভারতীয় সিভিল সার্ভিস-এর সদস্য এবং ভারতের অস্থায়ী ভাইসরয় ও গভর্নর জেনারেল। তিনি ১৮২৩ সালের ৫ জুন জন্মগ্রহণ করেন। স্ট্র্যাচি ছিলেন বেঙ্গল সিভিল সার্ভিসের কর্মকর্তা এডওয়ার্ড স্ট্র্যাচির পুত্র। তিনি ইংল্যান্ডের হেইলিবেরি কলেজে শিক্ষা লাভ করেন। তাঁর ভাই রিচার্ড স্ট্র্যাচিও ভারতীয় সিভিল সার্ভিস-এর একজন কর্মকর্তা ছিলেন। জন স্ট্র্যাচি ১৮৪২ সালে প্রথম ভারতে আসেন এবং লর্ড ল্যান্সডাউন, লর্ড  মেয়ো ও লর্ড  লিটন ভাইসরয় থাকাকালে কৃতিত্বের সাথে তাঁর নিজ দায়িত্ব পালন করেন। তিনি মধ্যপ্রদেশে বিচার বিষয়ক কমিশনার (১৮৬২), অযোধ্যায় প্রধান কমিশনার (১৮৬৬-১৮৬৭), গভর্নর জেনারেল-এর সুপ্রিম কাউন্সিলের সদস্য (১৮৬৮-১৮৭২), অস্থায়ী ভাইসরয় ও গভর্নর জেনারেল (১৮৭২), উত্তর-পশ্চিম প্রদেশে লেফ্টেন্যান্ট গভর্নর (১৮৭৪-১৮৭৬) এবং সুপ্রিম কাউন্সিলের অর্থ বিষয়ক সদস্যের (১৮৭৬-১৮৮০) মতো অনেক গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন।

জন স্ট্র্যাচি ১৮৮০ সালে ভারত ত্যাগ করেন। তিনি ১৮৮৫ সালে ভারতীয় কাউন্সিলের সদস্য হন এবং ১৮৯৫ সাল পর্যন্ত উক্ত পদে বহাল থাকেন। ভারতে থাকাকালে তিনি লবণ কর নিয়মানুগ করেছিলেন, অন্যান্য দেশীয় দ্রব্যের কর কমিয়েছিলেন এবং ভারতে মুক্ত বাণিজ্য প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। কেন্দ্রীয় ও প্রাদেশিক সরকারের মধ্যে অর্থনৈতিক সর্ম্পক নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে তিনি গ্রহণ করেছিলেন বিভিন্ন ব্যবস্থা। জন স্ট্র্যাচি ১৮৭৮ সালে জি.সি.এস.আই পুরস্কার লাভ করেন।

স্ট্র্যাচি ছিলেন একজন সৃজনশীল লেখক। তাঁর ভারত ত্যাগের ২ বছর পর ১৮৮২ সালে তাঁর বিখ্যাত গ্রন্থ The Finance and the Public Works of India 1869-1881 প্রকাশিত হয়। তাঁর লেখা অন্য দুটি গ্রন্থের মধ্যে Hastings and the Rohilla War এবং India, Its Administration and Progress যথাক্রমে ১৮৯২ ও ১৯০৩ সালে প্রকাশিত হয়। স্যার জন স্ট্র্যাচির ১৯০৭ সালের ১৯ ডিসেম্বর ৮৫ বছর বয়সে মৃত্যু হয়।  [কে.এম মোহসীন]