সেনবাগ উপজেলা


সেনবাগ উপজেলা (নোয়াখালী জেলা)  আয়তন: ১৫৫.৮৩ বর্গ কিমি। অবস্থান: ২২°৫২´ থেকে ২৩°০৫´ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৯১°০৮´ থেকে ৯২°১৬´ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ। সীমানা: উত্তরে নাঙ্গলকোট ও মনোহরগঞ্জ উপজেলা, দক্ষিণে কবিরহাট ও কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) উপজেলা, পূর্বে দাগনভূঁইয়া উপজেলা, পশ্চিমে বেগমগঞ্জ ও সোনাইমুড়ি উপজেলা।

জলাশয় প্রধান নদী: ডাকাতিয়া।

জনসংখ্যা ২৭২১৩৩; পুরুষ ১৩১৩৪৯, মহিলা ১৪০৭৮৪। মুসলিম ২৫৯৭৩৬, হিন্দু ১২১৬৪, বৌদ্ধ ১৯, খ্রিস্টান ১১২ এবং অন্যান্য ১০২।

প্রশাসন সেনবাগ থানাকে উপজেলায় রূপান্তর করা হয় ১৯৮৩ সালে।

উপজেলা
পৌরসভা ইউনিয়ন মৌজা গ্রাম জনসংখ্যা ঘনত্ব (প্রতি বর্গ কিমি) শিক্ষার হার (%)
শহর গ্রাম শহর গ্রাম
৯৯ ১১১ ৫৩৮২৯ ২১৮৩০৪ ১৭৪৬ ৬১.১৬ ৫৫.৮৮
উপজেলা শহর
আয়তন (বর্গ কিমি) মৌজা লোকসংখ্যা ঘনত্ব (প্রতি বর্গ কিমি) শিক্ষার হার (%)
২৭.৪৫ ৫৩৮২৯ ১৯৫৭ ৬২.১৬
ইউনিয়ন
ইউনিয়নের নাম ও জিও কোড আয়তন (একর) লোকসংখ্যা শিক্ষার হার (%)
পুরুষ মহিলা
অর্জুনতলা ৯ ৪৩২৪ ১৩৬৫৩ ১৪৪০১ ৫৬.৮৫
কাদরা ৫৭ ৪৬৩৬ ১৫৬৯১ ১৭৩০২ ৫৫.৮১
কাবিলপুর ৪৭ ৫০৭৬ ২০১০১ ২০৩৬৯ ৬১.৬৪
কেশরপাড় ৬৬ ৪৫৯৫ ১৫১৩৯ ১৬৪৭৯ ৪৯.৫০
ছাতারপাইয়া ২৮ ৩৮০৮ ১২৯১৬ ১৪৩৯৬ ৫৪.৭৪
ডুমুরিয়া ৩৮ ৫৬১৩ ১৩৬০৭ ১৫৪২৫ ৪৯.৭৫
নবীপুর ৮৫ ৪২০৪ ১৩৫৫৬ ১৪২৮২ ৬০.৬৮
বিজয়বাগ ১৯ ৩৬০৮ ১২৫৫৩ ১৩৫১০ ৬০.৩৪
মোহাম্মদপুর ৭৬ ৩০৯৯ ১৪১৩৩ ১৪৬২০ ৬২.২৬

সূত্র আদমশুমারি রিপোর্ট ২০০১, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো।

SenbaghUpazila.jpg

প্রাচীন নিদর্শনাদি ও প্রত্নসম্পদ কাদরার কিল্লা, বীরকোটের বীরের মুর্তি, কুশাগাজীর মসজিদ।

মুক্তিযুদ্ধের ঘটনাবলি স্বাধীনতাযুদ্ধের সময় এ উপজেলার কানরিহাটে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য একটি প্রশিক্ষণ-ক্যাম্প স্থাপন করা হয়। প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধারা ডোমনাকান্দি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্থাপিত পাকবাহিনীর ক্যাম্প আক্রমণ করলে তাদের সঙ্গে মুক্তিযোদ্ধাদের লড়াই হয়। উক্ত লড়াইয়ে কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হন।

ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান  মসজিদ ৩৬০, মন্দির ৩৯, মাযার ১০। উল্লেখযোগ্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান: সেনবাগ বাজার জামে মসজিদ।

শিক্ষার হার, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড় হার ৫৬.৯৪%; পুরুষ ৫৮.৬৮%, মহিলা ৫৫.৩৭%। কলেজ ৩, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ২৬, কমিউনিটি স্কুল ৭, প্রাথমিক বিদ্যালয় ১২৪, মাদ্রাসা ২৫। উল্লেখযোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান: মোহাম্মদপুর রামেন্দ্র মডেল উচ্চ বিদ্যালয় (১৯১৬), বিজয়বাগ নবকৃষ্ণ উচ্চ বিদ্যালয় (১৯৩৯), সেনবাগ সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় (১৯৪০), সেনবাগ আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় (১৯৪০), জয়নগর ওয়াজেদিয়া আলিম মাদ্রাসা (১৯০০), ছমির মুন্সিরহাট দাখিল মাদ্রাসা (১৯০২), কাদরা হামিদিয়া দাখিল মাদ্রাসা (১৯১৯)।

পত্র-পত্রিকা ও সাময়িকী মাসিক: সেনবাগ বার্তা, সেনবাগ সমাচার।

সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান লাইব্রেরি ৭, ক্লাব ১৭, সিনেমা হল ১, খেলার মাঠ ১৪।

দর্শনীয় স্থান ভূঁইয়ার দীঘি।

জনগোষ্ঠীর আয়ের প্রধান উৎস কৃষি ৩১.৪৫%, অকৃষি শ্রমিক ২.৩৯%, শিল্প ০.৬৮%, ব্যবসা ১৪.৯৪%, পরিবহণ ও যোগাযোগ ৪.৩৭%, চাকরি ২১.৪৮%, নির্মাণ ১.২৫%, ধর্মীয় সেবা ০.৫০%, রেন্ট অ্যান্ড রেমিটেন্স ১০.৮২% এবং অন্যান্য ১২.১২%।

কৃষিভূমির মালিকানা ভূমিমালিক ৬৪.২৬%, ভূমিহীন ৩৫.৭৪%। শহরে ৬৫.৮৭% এবং গ্রামে ৬৩.৮৬% পরিবারের কৃষিজমি রয়েছে।

প্রধান কৃষি ফসল ধান, গম, পান, শাকসবজি।

বিলুপ্ত বা বিলুপ্তপ্রায় ফসলাদি  তিল, তিসি, সরিষা, মিষ্টি আলু, আউশ ধান।

প্রধান ফল-ফলাদি আম, কাঁঠাল, কলা, পেঁপে, নারিকেল, খেজুর, সুপারি।

মৎস্য, গবাদিপশু ও হাঁস-মুরগির খামার হাঁস-মুরগি ১৬, নার্সারি ২৩।

যোগাযোগ বিশেষত্ব পাকারাস্তা ১৫৩ কিমি, আধা-পাকারাস্তা ৩.১০ কিমি, কাঁচারাস্তা ৫১৬ কিমি।

বিলুপ্ত বা বিলুপ্তপ্রায় সনাতন বাহন পাল্কি, ঘোড়া ও গরুর গাড়ি।

শিল্প ও কলকারখানা ধানকল, আটাকল, বরফকল।

কুটিরশিল্প স্বর্ণশিল্প, লৌহশিল্প, মৃৎশিল্প, তালপাতার পাখা, বাঁশ ও বেতের কাজ।

হাটবাজার ও মেলা হাটবাজার ২৫, মেলা ১০। সেনবাগ বাজার, কানকির হাট, ছমির মুন্সির হাট, দরবেশ হাট এবং আমতলী মেলা, নলদিয়া মেলা ও পাঁচপীরের দরগা মেলা উল্লেখযোগ্য।

প্রধান রপ্তানিদ্রব্য ধান, কলা, পান, নারিকেল, সুপারি।

বিদ্যুৎ ব্যবহার এ উপজেলার সবক’টি ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন পল্লিবিদ্যুতায়ন কর্মসূচির আওতাধীন। তবে ৩৬.৩৩% পরিবারের বিদ্যুৎ ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে।

পানীয়জলের উৎস নলকূপ ৯০.৩৭%, ট্যাপ ১.০৫%, পুকুর ৩.২৩% এবং অন্যান্য ৫.৩৫%। এ উপজেলার অগভীর নলকূপের পানিতে আর্সেনিকের উপস্থিতি প্রমাণিত হয়েছে।

স্যানিটেশন ব্যবস্থা এ উপজেলার ৬১.০৫% (গ্রামে ৫৮.৩৩% এবং শহরে ৭২.১২%) পরিবার স্বাস্থ্যকর এবং ২৮.৭২% (গ্রামে ৩১.৪১% এবং শহরে ১৭.৮০%) পরিবার অস্বাস্থ্যকর ল্যাট্রিন ব্যবহার করে। ১০.২৩% পরিবারের কোনো ল্যাট্রিন সুবিধা নেই।

স্বাস্থ্যকেন্দ্র উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ১, উপ-স্বাস্থ্যকেন্দ্র ২, মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র ১, ক্লিনিক ১২।

প্রাকৃতিক দুর্যোগ ১৯৬১ সালের ১৬ অক্টোবরের ঘুর্ণিঝড়ে উপজেলার ঘরবাড়ি, গাছপালা ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়।

এনজিও আশা, ব্র্যাক, কারিতাস, কেয়ার, প্রশিকা।  [মো. তৌহিদ হোসেন চৌধুরী]

তথ্যসূত্র  আদমশুমারি রিপোর্ট ২০০১, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো; সেনবাগ উপজেলা সাংস্কৃতিক সমীক্ষা প্রতিবেদন ২০০৭।