সূর্যমুখী


সূর্যমুখী

সূর্যমুখী  Asteraceae গোত্রের বর্ষজীবী বা বহুবর্ষজীবী তেলপ্রদায়ী উদ্ভিদ Helianthus annuus। কিনারে হলুদ রশ্মিপুষ্পিকাসহ মুন্ডকমঞ্জরি (head) ৩০ সেমি পর্যন্ত চওড়া হয়। বীজ তেলপ্রদায়ী এবং হাঁস-মুরগির খাদ্য। বনস্পতি বা উদ্ভিজ্জ ঘি তৈরিতে বাদাম তেলের বিকল্প হিসেবে ব্যবহার্য। ভোজ্যতেলের মধ্যে সূর্যমুখী তেল পুষ্টিমানে সর্বোত্তম; হূদরোগীদের জন্য বিশেষ উপযোগী, কারণ এতে রক্তে কলেস্টেরল বাড়ে না।

এ তেল প্রোটিন এবং ভিটামিন ‘এ’, ‘ডি’ ও ‘ই’ সমৃদ্ধ। খোসা-ছাড়ানো খৈল গবাদি পশুর খাদ্য। সম্ভবত সূর্যমুখীর প্রথম আবাদ হয় মেক্সিকোতে। বাংলাদেশে সূর্যমুখীর চাষ প্রথমে বাগানের বাহারি ফুল হিসেবে এবং পরে ১৯৮০-র দশকে উত্তরবঙ্গের কয়েকটি জেলায় রবি ও খরিফ ফসল হিসেবে এর চাষ শুরু হয়। হেক্টরপ্রতি বীজ উৎপাদন প্রায় ৭৬০ কেজি। ফসল পাকতে সময় লাগে ৯০-১০০ দিন।  [মোস্তফা কামাল পাশা]

আরও দেখুন তেলপ্রদায়ী উদ্ভিদ