সুলতানপুর মসজিদ


সুলতানপুর মসজিদ গাজীপুর জেলার কাপাসিয়া উপজেলার পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের ডানতীরে সুলতানপুর গ্রামে অবস্থিত। এগারসিন্ধুরের  সাদী মসজিদ থেকে প্রায় ২ কিমি দক্ষিণ-পশ্চিমে এ মসজিদের অবস্থান। প্রায় ধ্বংসপ্রাপ্ত মসজিদটি স্থানীয় জনগণ মেরামত করায় এর আদি বৈশিষ্ট্য হারিয়ে গেছে। পূর্বদিকে একটি সমতল ছাদবিশিষ্ট বারান্দা সংযোজিত হয়েছে।

ইট নির্মিত বর্গাকার এ মসজিদ পলেস্তরায় আচ্ছাদিত। এর প্রতি দিকের পরিমাপ ৪.৮৮ মি। মসজিদটির গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এর বাইরের চারকোণে রয়েছে চারটি অষ্টভুজাকৃতির বুরুজ। এগুলি মসজিদের সমান্তরাল বপ্র (Parapet) ছাড়িয়ে উপরে উঠে গেছে এবং এর শীর্ষে রয়েছে কলস নকশা শোভিত ছত্রী। মসজিদে প্রবেশের জন্য উত্তর, দক্ষিণ ও পূর্বদিকে তিনটি খিলানযুক্ত প্রবেশপথ রয়েছে। পূর্বদিকের প্রবেশপথ বরাবর কিবলা দেয়ালে একটি অর্ধ অষ্টভুজাকৃতি মিহরাব আছে, যার বাইরের দিকে আছে একটি আয়তাকার প্রক্ষেপণ। সাদী মসজিদের অনুরূপ এ মসজিদের মিহরাব এবং পূর্বদিকের প্রবেশপথে অলংকৃত ইটের স্তম্ভের উপর বহুখাঁজবিশিষ্ট খিলান সংযোজিত হয়েছে। মিহরাব এবং পূর্বদিকের প্রবেশপথ উভয়ই আদিতে পোড়ামাটি অলংকরণে সুশোভিত করা ছিল যার চিহ্ন এখনও দেখা যায়। মসজিদটি একটিমাত্র গম্বুজ দ্বারা আচ্ছাদিত। এর শীর্ষদেশ পদ্ম এবং কলস নকশায় শোভিত। মিহরাব এবং প্রবেশপথের উপরে অবস্থিত চারটি বদ্ধ খিলান গম্বুজটির ভার বহন করছে। এ খিলানগুলির উপরের অংশের মধ্যবর্তী কোণ সুলতানি রীতির বাংলা পেন্ডেন্টিভ দ্বারা পূর্ণ করা হয়েছে।

মসজিদটিতে কোন শিলালিপি না থাকায় এর সঠিক নির্মাণকাল সম্পর্কে জানা যায় না। তা সত্ত্বেও নিকটবর্তী সাদী মসজিদের (১৬৫২) নির্মাণ কৌশলের সাথে তুলনা করে সতেরো শতকের মাঝামাঝি সময়ে মসজিদটি নির্মিত হয়েছিল বলে ধারণা করা হয়।  [এম.এ বারি]