শাহ মুহম্মদ সগীর


শাহ মুহম্মদ সগীর (আনু. ১৪শ-১৫শ শতক)  মধ্যযুগীয় বাংলা সাহিত্যের একজন খ্যাতনামা কবি। তাঁর রচিত  ইউসুফ-জুলেখা কাব্যে গৌড় সুলতান গিয়াসউদ্দীন আজম শাহের (১৩৮৯-১৪১০) স্ত্ততি আছে। এ থেকে তাঁর আবির্ভাব কাল চৌদ্দ শতকের শেষভাগ থেকে পঞ্চদশ শতকের প্রথমভাগ বলে অনুমান করা হয়। তিনি সম্ভবত সুলতানের সভাকবি ছিলেন এবং তাঁরই নির্দেশে এ কাব্য রচনা করেন। গ্রন্থের শুরুতে রাজস্ত্ততি ছাড়াও কবির পিতা-মাতা ও গুরুজনদের বন্দনা আছে; কিন্তু তাঁদের নাম বা আবাসস্থলের কোনো বর্ণনা নেই। মুহম্মদ সগীরই প্রথম বাংলা ভাষার মাধ্যমে আরবি-ফারসি সাহিত্যের বিষয় এদেশের পাঠকের কাছে তুলে ধরেন। ইউসুফ-জুলেখার প্রেমকাহিনী পবিত্র কুরআনে আছে। ইরানের সুফি কবিরা এই কাহিনী অবলম্বনে ফারসিতে কাব্য রচনা করেন। ফেরদৌস ও জামী এঁদের মধ্যে প্রধান ছিলেন। ফারসি ইউসুফ-জুলেখা কাব্যে আধ্যাত্মিক প্রেমতত্ত্বের ব্যঞ্জনা আছে; কিন্তু বাংলা কাব্যে মানবপ্রেম প্রাধান্য লাভ করেছে। কাব্যের শেষে ইউসুফের দিগ্বিজয় ও ইবন আমিন-বিধুপ্রভার প্রেমাখ্যান যুক্ত করায় কবির এরূপ মানসিকতা অধিকতর প্রকাশিত হয়। অংশটি সম্পূর্ণ কবির কল্পনাপ্রসূত।  [ওয়াকিল আহমদ]