রামনারায়ণ তর্করত্ন


রামনারায়ণ তর্করত্ন (১৮২২-১৮৮৬)  নাট্যকার। ১৮২২ সালের ২৬ ডিসেম্বর পশ্চিমবঙ্গের চবিবশ পরগনা জেলার হরিনাভি গ্রামে তাঁর জন্ম। গ্রামের চতুষ্পাঠীতে বাল্যশিক্ষা শেষ করে তিনি কলকাতার  সংস্কৃত কলেজএ দশ বছর (১৮৪৩-৫৩) ব্যাকরণ, কাব্য, স্মৃতি ও ন্যায়শাস্ত্র অধ্যয়ন করেন। পরে দুই বছর হিন্দু মেট্রোপলিটন কলেজে প্রধান পন্ডিতপদে চাকরি করার পর তিনি সংস্কৃত কলেজে প্রায় ২৭ বছর অধ্যাপনা করেন। ১৮৮২ সালে এখান থেকে অবসর গ্রহণের পর তিনি স্বগ্রামে একটি চতুষ্পাঠী খুলে অধ্যাপনার মাধ্যমে বাকি জীবন অতিবাহিত করেন। উলে­খ্য, তাঁর অগ্রজ প্রাণকৃষ্ণ বিদ্যাসাগরও সংস্কৃত কলেজের অধ্যাপক ছিলেন।

বাংলা মৌলিক নাটক রচয়িতা হিসেবেই রামনারায়ণের মুখ্য পরিচয়। বাংলা ভাষায় প্রথম বিধিবদ্ধ নাটক রচনার জন্য তিনি ‘নাটুকে রামনারায়ণ’ নামে পরিচিত ছিলেন। কুলীনকুলসবর্বস্ব (১৮৫৪) তাঁর প্রথম ও শ্রেষ্ঠ নাটক। এতে হিন্দুসমাজে বহুবিবাহ প্রথার কুফল সম্পর্কে বাস্তব চিত্র তুলে ধরা হয়। তাঁর অন্যান্য রচনা: রত্নাবলী (১৮৫৮), নব-নাটক (১৮৬৬), বেণীসংহার (১৮৫৬), মালতীমাধব (১৮৬৭), রুক্মিণীহরণ (১৮৭১), কংসবধ (১৮৭৫) ইত্যাদি। পতিব্রতোপাখ্যান (১৮৫৩) তাঁর প্রবন্ধগ্রন্থ। এছাড়া তিনি যেমন কর্ম তেমনি ফল (১৮৬৩), উভয় সঙ্কট (১৮৬৯), চক্ষুদান প্রভৃতি প্রহসনও রচনা করেন। তাঁর অধিকাংশ নাটক ও প্রহসন বেলগাছিয়া রঙ্গমঞ্চ, কলকাতার অভিজাত ধনিকশ্রেণীর নিজস্ব মঞ্চ এবং জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ি নাট্যশালায় বহুবার অভিনীত হয়। ‘দি বেঙ্গল ফিলহার্মোনিক আকাদেমি’ থেকে তিনি ‘কাব্যোপাধ্যায়’ উপাধি লাভ করেন। ১৮৮৬ সালের ১৯ জানুয়ারি স্বগ্রামে তাঁর মৃত্যু হয়।  [ওয়াকিল আহমদ]