রমনা থানা


রমনা থানা (ঢাকা মেট্রোপলিটন)  আয়তন: ৩.৮৪ বর্গ কিমি। অবস্থান: ২৩°৪৩´ থেকে ২৩°৪৫´ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৯০°২৩´ থেকে ৯০°২৫´ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ। সীমানা: উত্তরে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল এলাকা এবং রামপুরা থানা, দক্ষিণে শাহবাগ থানা, পূর্বে রামপুরা, মতিঝিল ও পল্টন থানা, পশ্চিমে কলাবাগান, নিউমার্কেট ও তেজগাঁও থানা।

জনসংখ্যা ১৮৫৪৪২; পুরুষ ১০২৫৩১, মহিলা ৮২৯১১। মুসলিম ১৭৪৪৬৮, হিন্দু ৭৪১৭, বৌদ্ধ ২৫৫৫, খ্রিস্টান ৪৭০ এবং অন্যান্য ৫৩১।

জলাশয় রমনা লেক।

প্রশাসন রমনা থানা গঠিত হয় ১৯২১ সালে।

থানা
ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন মহল্লা জনসংখ্যা ঘনত্ব (প্রতি বর্গ কিমি) শিক্ষার হার (%)
শহর গ্রাম শহর গ্রাম
২+৩ (আংশিক) ১৬ ১৮৫৪৪২ - ৪৮২৯২ ৭৩.৭৮ -
ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন
ওয়ার্ড নম্বর ও ইউনিয়ন আয়তন (বর্গ কিমি) লোকসংখ্যা শিক্ষার হার (%)
পুরুষ মহিলা
ওয়ার্ড  নং ৫৩ (আংশিক) ১.৪৩ ২১৪৪০ ১৯৩০০ ৮০.২৩
ওয়ার্ড  নং ৫৪ ০.৯৮ ৪১০৬০ ৩২৬০৬ ৭২.৬১
ওয়ার্ড  নং ৫৫ ০.৮১ ৩৪১৮২ ২৭৮৪৯ ৭২.৪৯
ওয়ার্ড  নং ৫৬ (আংশিক) ০.৪৫ ২২২৪ ১০৮৬ ৭৩.৪৬
ওয়ার্ড  নং ৫৭ (আংশিক) ০.১৭ ৩৬২৫ ২০৭০ ৭০.১২

সূত্র আদমশুমারি রিপোর্ট ২০০১, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো।

RamnaThana.jpg

প্রাচীন নিদর্শনাদি ও প্রত্নসম্পদ সিদ্ধেশ্বরী মন্দির, রমনা গেইট।

ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান  কাকরাইল মসজিদ, সিদ্ধেশ্বরী জামে মসজিদ, সার্কিট হাউজ জামে মসজিদ, কাকরাইল গির্জা, সিদ্ধেশ্বরী মন্দির, রমনা পার্ক মন্দির।

শিক্ষার হার, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড় হার ৭৫.১১%; পুরুষ ৮০.২৫%, মহিলা ৬৯.৯১%। উল্লেখযোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান: হাবিবুল্লাহ বাহার বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, ইব্রাহিম মেডিকেল কলেজ, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ, সিদ্ধেশ্বরী ডিগ্রি কলেজ, স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়, ভিকারুননিসা নুন স্কুল অ্যান্ড কলেজ (১৯৫১), সিদ্ধেশ্বরী গার্লস কলেজ, সিদ্ধেশ্বরী বয়েজ হাইস্কুল (১৯৩৩), উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজ (১৯৫৬), মগবাজার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, সিদ্ধেশ্বরী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, ইস্কাটন গার্ডেন উচ্চ বিদ্যালয়।

পত্র-পত্রিকা ও সাময়িকী দৈনিক জনকণ্ঠ।

সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ক্লাব ২০, খেলার মাঠ ১৭, সুইমিংপুল ৩, জাদুঘর ২, নাট্যমঞ্চ ৩, নাট্যদল ৬, মহিলা সংগঠন ৮।

গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন মেঘনা, রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন যমুনা, প্রধান বিচারপতির বাসভবন, রমনা পার্ক (১৯৪৭), বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী (১৯৭৪), আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট, দুর্নীতি দমন কমিশন, ঢাকা অফিসার্স ক্লাব, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর, বাংলাদেশ টেলিভিশন আর্কাইভ সেন্টার, বাংলাদেশ রেডিও বেতার ভবন, জাতীয় টেনিস কমপ্লেক্স, মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়, বাংলাদেশ নারী ও শিশু বিষয়ক অধিদপ্তর, মহা হিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রকের কার্যালয়, লেডিস ক্লাব, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট (বিয়াম) কমপ্লেক্স, বাংলাদেশ গার্ল গাইড এসোসিয়েশন, শ্রম ও জনশক্তি কর্মসংস্থান ব্যুরো, বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন ভবন, মৎস্য অধিদপ্তর, কর ভবন।

জনগোষ্ঠীর আয়ের প্রধান উৎস কৃষি ০.৯৯%, অকৃষি শ্রমিক ১.০৯%, শিল্প ২.১৮%,  ব্যবসা ২৫.৭৬%, পরিবহণ ও যোগাযোগ ৫.৮৪%, চাকুরি ৪৫.১৬%, নির্মাণ ২.৩ু%, ধর্মীয় সেবা ০.১১%, রেন্ট অ্যান্ড রেমিট্যান্স ৫.৬০% এবং অন্যান্য ১০.৯৭%।

কৃষিভূমির মালিকানা ভূমিমালিক ৬৬.২৮%, ভূমিহীন ৩৩.৭২%।

প্রধান ফল-ফলাদি আম, কাঁঠাল, নারিকেল।

যোগাযোগ বিশেষত্ব মোট সড়ক ৪৪.৫২ কিমি।

বিলুপ্ত বা বিলুপ্তপ্রায় সনাতন বাহন পাল্কি, গরু ও ঘোড়ার গাড়ি।

শিল্প ও কলকারখানা মুদ্রণশিল্প, পোশাক শিল্প, ইলেকট্রিক কারখানা, ঔষধ ও বনজ ঔষধ কারখানা।

কুটিরশিল্প হস্তশিল্প, কাঠের কাজ।

বাজার ও শপিংসেন্টার  আড়ং, মৌচাক মার্কেট, কর্ণফুলি গার্ডেন সিটি, গাজী ভবন মার্কেট, আনারকলি সুপার মার্কেট, সেগুনবাগিচা বাজার এবং রমনার বৈশাখী মেলা উল্লেখযোগ্য।

হোটেল ও রেস্তোরা  রূপসী বাংলা, প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেল, হোটেল রাজমনি ঈশাখাঁ।

প্রধান রপ্তানিদ্রব্য  তৈরি পোশাক, ইলেক্ট্রনিক ও ইলেক্ট্রিক পণ্য।

বিদ্যুৎ ব্যবহার এ থানার সবক’টি ওয়ার্ড বিদ্যুতায়ন কর্মসূচির আওতাধীন। তবে ৯৭.৬৮% পরিবারের বিদ্যুৎ ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে।

পানীয়জলের উৎস নলকূপ ৭.৬৫%, ট্যাপ ৯০.৮৮%, পুকুর ০.০৩% এবং অন্যান্য ১.৪৪%।

স্যানিটেশন ব্যবস্থা এ থানার ৯৩.২০% পরিবার স্বাস্থ্যকর এবং ৬.০৭% পরিবার অস্বাস্থ্যকর ল্যাট্রিন ব্যবহার করে। ০.৭৩% পরিবারের কোনো ল্যাট্রিন সুবিধা নেই।

স্বাস্থ্যকেন্দ্র বারডেম, আল-দ্বীন হাসপাতাল, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট হাসপাতাল।

এনজিও ডেমোক্রেসি ওয়াচ, বাংলাদেশ মহিলা সমিতি। [মো. মোশাররফ হোসেন সরকার]

তথ্যসূত্র   আদমশুমারি রিপোর্ট ২০০১, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো।