রংপুর পাবলিক লাইব্রেরি


রংপুর পাবলিক লাইব্রেরি জেলার প্রাচীনতম গ্রন্থাগার। ১৮৩২ সালে কুন্ডীর জমিদারগণ কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত হয়। রাজমোহন রায়চৌধুরী (১৭৮৬-১৮৪৭) প্রতিষ্ঠানটির সার্বিক আর্থিক দায়িত্ব গ্রহণ করেন। পরবর্তীকালে তুষভান্ডারের রমণীমোহন রায়চৌধুরী (১৮৬০-৮৭) এবং কাকিনার মহিমারঞ্জন রায়চৌধুরী (১৮৫২-১৯০৯) গ্রন্থাগারটির পৃষ্ঠপোষকতা করেন। এতে বিপুল সংখ্যক বই, পান্ডুলিপি, পুঁথি, উৎকীর্ণলিপি ও প্রত্নতাত্ত্বিক ধ্বংসাবশেষ সংগৃহীত ও সংরক্ষিত আছে। এর মূল্যবান সংগ্রহসমূহ অংশত ১৮৯৭ সালে এক ভূমিকম্পে এবং অংশত ১৯০৩ সালে এক অগ্নিকান্ডের ফলে বিনষ্ট হয়। ১৯০৬-০৭ সালে কুন্ডির সুরেন্দ্রচন্দ্র রায়চৌধুরী এবং জেলার অন্যান্য জমিদার কর্তৃক নবপ্রতিষ্ঠিত রংপুর সাহিত্য পরিষদ-এর সাথে গ্রন্থাগারটি একীভূত হয়। ১৯১২ সালে শহরের প্রাণকেন্দ্রে কাকিনার জমিদার রাজা মহিমারঞ্জন রায়চৌধুরী কর্তৃক দানকৃত একখন্ড জমির উপর এডওয়ার্ড মেমোরিয়াল হল নির্মাণের পর এটি একটি স্বতন্ত্র প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ শুরু করে। ১৯৩৫ সালে ভারত সরকার এটিকে সরকারি প্রতিষ্ঠান হিসেবে অধিগ্রহণ করে। ১৯৭১ সালে বংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন এটি ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়। অবশ্য ১৯৯১ সালে একই চত্বরে একটি নতুন পাবলিক লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠার ফলে সরকার ও জনসাধারণের পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে এই ঐতিহাসিক গ্রন্থাগারটি বন্ধ করে দিতে হয়।  [মুহাম্মদ মুনীরুজ্জামান]