মাগনের গান


মাগনের গান  এক প্রকার লোকগীতি। ‘মাগন’ শব্দটি এসেছে হিন্দি ‘মাঙ্গন’ থেকে; এর অর্থ চাওয়া বা যাচ্ঞা করা। প্রাকৃতিক দুর্যোগ কিংবা পৌষ-পার্বণকে সামনে রেখে গ্রামের কিশোর-কিশোরীরা দল বেঁধে বাড়ি বাড়ি গিয়ে পীর-ফকির বা দেবদেবীর নামে এই গান গেয়ে চাল-ডাল ও টাকা-পয়সা সংগ্রহ করে। অনাবৃষ্টি দেখা দিলে মেয়েরা মেঘারানীর গান গেয়ে কুলায় জলঘট বসিয়ে বাড়ি বাড়ি গিয়ে জল মাগে। ঘরের গৃহিণীরা জল ছিটিয়ে পরস্পরকে ভিজিয়ে দিয়ে বৃষ্টির নকল করে। রাখাল কিংবা কৃষক-সন্তানেরা মানিকপীর বা সোনাপীরের প্রতীক লাঠি নিয়ে যখন বাড়ি বাড়ি গিয়ে শির্নীর চাল-ডাল মাগে, তখন তারা ছড়া কাটে এবং গান গায়। তাদের গানে অধিক চাল-ডালের আশায় গৃহস্থের স্ত্ততি ও কল্যাণ কামনা থাকে; কেউ কৃপণতা করলে তাকে ভয়-ভীতি দেখানোর ভাষাও প্রয়োগ করা হয়।

সাধারণত ওন্নি, হুলুই ও বাঘাইপীরের গান মাগনের গান হিসেবে পরিচিত। মানিকগঞ্জের ঘিওর অঞ্চলে শীতের দিনে ধান কাটা শেষ হলে রাখালরা শির্নীর মাগনের জন্য ওন্নি গান গায়। মূল গায়ক দলের সামনে থেকে প্রথমে গান ধরে, আর দলের রাখাল বালকরা সমস্বরে তার অনুসরণ করে। এভাবে সংগৃহীত চাল-ডাল দিয়ে তারা মাঠে বসে খিচুড়ি রান্না করে খায়। [মোমেন চৌধুরী]