মহল


মহল  মুগল শাসনের অধীনে রাজস্ব এবং প্রশাসনিক বিভাগের একটি ইউনিট। আইন-ই-আকবরী গ্রন্থে টোডরমলের বন্দোবস্তে বাংলার রাজস্ব ব্যবস্থার বিবরণে দেখা যায় যে, সমগ্র বাংলা কয়েকটি সরকার এবং প্রতিটি সরকার আবার অনেকগুলি পরগণা বা মহলে বিভক্ত ছিল। বিভিন্ন হারের রাজস্ব নির্ধারণীর আওতায় একাধিক গ্রাম একত্র করেই মহল নামে একটি সরকারী রাজস্ব ইউনিট গঠন করা হয়েছিল। কোনো কোনো ক্ষেত্রে একে পরগণাও বলা হয়েছে। তবে কার্যত এই বিভাগীয় শব্দের মধ্যে মৌলিক কিছু পার্থক্য ছিল। কয়েকটি গ্রাম নিয়ে গঠিত একটি রাজস্ব ও ভূখন্ড সম্পর্কিত ইউনিট ছিল পরগনা। কিন্তু মহল ছিল শুধুমাত্র একটি রাজস্ব ইউনিট। যেমন, মহল কাট্টা পরচা। পরগণা একজন ফৌজদার এর অধীনে ছিল, কিন্তু একটি রাজস্ব ইউনিট হিসেবে মহল ছিল সম্পূর্ণ স্বাধীন। প্রতি পরগনায় একাধিক মহল সন্নিবেশিত হতে পারত, কিন্তু সাধারণত মহল ছিল একটি একক প্রশাসনিক ইউনিট।

অনেক সময় হরেক রকম রাজস্ব নির্দেশ করতেও মহল শব্দটির প্রয়োগ হত, যেমন ‘জলমহল’ (মাছ জাতীয় সামগ্রীর উপর ধার্য কর), ‘সায়ের মহল’ ইত্যাদি।  [আবদুল করিম]