মজুমদার, অম্বিকাচরণ


মজুমদার, অম্বিকাচরণ (১৮৫০- )  রাজনীতিবিদ, শিক্ষাবিদ ও সমাজসেবী। তিনি ১৮৫০ সালে ফরিদপুর জেলার সেনদিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। এ গ্রামটি এখন মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলার অর্ন্তগত। তাঁর পিতা রাধামাধব মজুমদার ছিলেন একজন জমিদার। অম্বিকাচরণ ১৮৬৯ সালে ফরিদপুর থেকে এন্ট্রান্স পাস করেন। অতঃপর কলকাতা থেকে গ্র্যাজুয়েশন ডিগ্রি লাভের পর তিনি মেট্রোপলিটন ইনিস্টিটিউশনে শিক্ষকতায় যোগ দেন। কলকাতায় থাকাকালীন তিনি সুরেন্দ্রনাথ ব্যানার্জীর সান্নিধ্যে আসেন এবং রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হন। ১৮৭৫ সালে কলকাতার প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে এম.এ ডিগ্রি লাভ করেন এবং ১৮৭৮ সালে বি.এল পাস করেন।

অম্বিকাচরণের মাতা সুভদ্রা দেবী তাঁকে ফরিদপুরে এসে এলাকার উন্নতির জন্য আত্মনিয়োগ করতে বলেন। তিনি ১৮৭৯ সালে ফরিদপুর জেলা আদালতে যোগ দেন। ১৮৮১ সালে ফরিদপুর আইনজীবী সমিতি গঠিত হয় এবং অম্বিকাচরণ সমিতির প্রথম সম্পাদক হন। পরবর্তী সময়ে তিনি সভাপতি নির্বাচিত হন। ১৮৮১ সালেই তিনি ‘ফরিদপুর পিপলস এসোসিয়েশন’ গঠন করেন। এটিকে পূর্ববঙ্গের প্রথম রাজনৈতিক দল বলে গণ্য করা হয়। ১৮৮৬ সালে অম্বিকাচরণ নিখিল ভারত কংগ্রেসের ২য় অধিবেশনে যোগদান করেন। তিনি ১৮৯৯ সালে নিখিল ভারত কংগ্রেসের বর্ধমানে অনুষ্ঠিত বঙ্গীয় প্রাদেশিক সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন। ১৯১০ সালেও তিনি কলকাতায় অনুষ্ঠিত প্রাদেশিক সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন। ১৯১৬ সালে তিনি নিখিল ভারত কংগ্রেসের ৩১তম অধিবেশনে সভাপতি নির্বাচিত হন। চরম ও উদারপন্থীদের মধ্যে সৃষ্ট বিতর্ক এড়িয়ে তিনি ভারতে জনপ্রতিনিধিত্বশীল সরকার গঠনের আহবান জানান। তাঁর অভিমত ছিল, ভারতকে বিদেশি প্রভাবমুক্ত হতে হবে এবং স্বশাসিত জাতির মর্যাদা দান করতে হবে। ১৯১৭ সালে তিনি বিভাগীয় পৌর কমিটিসমূহের সমন্বয়ে গঠিত নির্বাচনী এলাকা থেকে প্রাদেশিক আইন পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন। অশ্বিনীকুমার দত্ত, ভূপেন্দ্রনাথ বসু, সুরেন্দ্রনাথ ব্যানার্জী ও অম্বিকাচরণ একত্রিত হয়ে বঙ্গভঙ্গের বিরূদ্ধে আন্দোলন গড়ে তোলেন। তাঁর নিজস্ব জেলা ফরিদপুরে হিন্দু-মুসলিম নির্বিশেষে ব্যাপক জনতা এ আন্দোলনে শরিক হয়। এ বিষয়ে তিনি বিভিন্ন স্থানে বক্তৃতা করেন। ১৯১৮ সালে ‘লিবারেল ফেডারেশন’ নামক একটি সংগঠন প্রতিষ্ঠার সঙ্গে তিনি যুক্ত ছিলেন।

১৯১৮ সালে তিনি রাজেন্দ্র কলেজ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। তাঁকে কলেজের অধ্যক্ষ-সভার সভাপতি নির্বাচিত করা হয়। তিনি বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে যুক্ত ছিলেন। অম্বিকাচরণ দীর্ঘদিন ফরিদপুর পৌরসভার নির্বাচিত সদস্য ও চেয়ারম্যান ছিলেন। ভারতের জাতীয় কংগ্রেসের ইতিহাসের ভিত্তিতে তিনি Evolution of the Indian Congress নামক একটি গ্রন্থ প্রণয়ন করেন। তিনি ছিলেন সুবক্তা এবং দয়ালু ব্যক্তি। বাংলার লেফটেন্যান্ট গভর্নর স্যার উডবার্ন তাঁকে ফরিদপুরের প্রবীণ সজ্জন বলে আখ্যায়িত করেন। তাঁর নিজস্ব জেলা ফরিদপুরে তাঁর নামে একটি মিলনায়তন ও একটি জনসভার মাঠ রয়েছে যা যথাক্রমে অম্বিকা হল এবং অম্বিকা ময়দান নামে পরিচিত।  [আবু সাঈদ খান]