ভিকারুননিসা নুন স্কুল ও কলেজ


ভিকারুননিসা নুন স্কুল ও কলেজ  ১৯৪৭ সালে প্রিপারেটরি স্কুল নামে একটি স্কুল ঢাকার রমনার জিমখানায় স্থাপিত হয়। ১৯৫০ সালে তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নর ফিরোজ খান নুনেন স্ত্রী ভিকারুন্নিসা নুন স্কুলটি পরিদর্শনে এসে এর কার্যক্রমে সন্তুষ্ট হন, এবং তারই উদ্যোগে ১৯৫২ সালের ১৪ জানুয়ারি স্কুলটি ভিকারুননিসা নুন স্কুল নামে ঢাকার বেইলী রোডে বৃহৎ কলেবরে প্রতিষ্ঠিত হয়। মাত্র কয়েকটি শিশু নিয়ে একটি প্রিপারেটরি স্কুল হিসেবে এই প্রতিষ্ঠান যাত্রা শুরু করে।

প্রাথমিক বিদ্যায়তনটি দ্রুত হাইস্কুলে রূপান্তরিত হয় এবং ১৯৫৬ সালে সিনিয়র কেমব্রিজ পরীক্ষার জন্য ছাত্রছাত্রীরা প্রস্ত্ততি শুরু করে। পাবলিক পরীক্ষাসমূহে অত্যন্ত ভাল ফলাফল এবং মানসম্পন্ন শিক্ষাদানের জন্য স্কুলটি খ্যাতি অর্জন করে। ১৯৭৮ সালে এই স্কুল উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা কার্যক্রম শুরুর মাধ্যমে কলেজ শাখা চালু করে। ১৯৮৬ সালে মূল শাখায় একটি দিবা শাখা খোলা হয়। পরবর্তী সময়ে ধানমন্ডি, বসুন্ধরা ও আজিমপুরে আরও তিনটি শাখা স্থাপন করা হয়। নতুন শিক্ষার্থী ভর্তির চাপে স্কুলটি পর্যায়ক্রমে একাধিক সেকশন ও বৈকালিক শিফট চালু করে এবং ১৯৯৫ সালে বাংলা মাধ্যমের পাশাপাশি ইংরেজি মাধ্যমেও পাঠদান শুরু হয়। ব্যবসায় শিক্ষা শাখা ব্যতীত বাংলা ও ইংরেজি উভয় মাধ্যমে মানবিক ও বিজ্ঞান শাখার পাঠক্রম চালু রয়েছে।

ভিকারুননিসা নুন স্কুল ও কলেজ

এই স্কুলের মূল ক্যাম্পাস প্রায় ছয় একর জমির উপর বিস্তৃত। ইতোমধ্যেই এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষায় অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছে। ২০০৯ সালের পঞ্চম শ্রেণির সমাপনী পরীক্ষায় এ প্রতিষ্ঠানের ছাত্রীরা শতভাগ উত্তীর্ণ হবার গৌরব অর্জন করেছে।

লেখাপড়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের মেধা বিকাশের লক্ষ্যে নিয়মিতভাবে নানা ধরনের সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড ও খেলাধুলার আয়োজন করা হয়। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলাধুলাসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ভিকরুন্নিসা নুন স্কুল ও কলেজের ছাত্রীরা নিয়মিত অংশগ্রহণ করে। ছাত্রীদের সৃজনশীল হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে এই প্রতিষ্ঠানে রয়েছে বিভিন্ন ক্লাব: বিজ্ঞান ক্লাব, বিতর্ক ক্লাব, পরিবেশ ক্লাব এবং ইংরেজি ভাষা ক্লাব। বর্তমানে ভিকারুন্নেসা স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থী সংখ্যা মোট ১৭,৯৮৫। তার মধ্যে স্কুল শিক্ষার্থী ১৫,৪৫০ এবং কলেজ শিক্ষার্থী ২,৫৩৫ জন। স্কুল সেকশনে নিয়মিত শিক্ষক সংখ্যা ৩৩৫ এবং খন্ডকালীন ৯৭ জন। কলেজ সেকশনে নিয়মিত শিক্ষক সংখ্যা ৫১ এবং খন্ডকালীন ১৯ জন। এছাড়া এ প্রতিষ্ঠানে ১৫০ জন কর্মচারী রয়েছে।

একটি পরিচালনা পর্ষদ কর্তৃক ভিকারুননিসা নুন স্কুল ও কলেজ পরিচালিত হয়। প্রতিষ্ঠানটির একাডেমিক এবং প্রশাসনিক  প্রধান হলেন অধ্যক্ষ এবং প্রত্যেক শাখায় রয়েছেন একজন করে তত্ত্বাবধায়ক।  [রোকেয়া আকতার বেগম]