ভারতবর্ষ


ভারতবর্ষ  কলকাতা থেকে প্রকাশিত একটি বাংলা মাসিক পত্রিকা। বিখ্যাত নাট্যকার দ্বিজেন্দ্রলাল রায় (১৮৬৩-১৯১৩) ছিলেন পত্রিকাটির প্রথম সম্পাদক। ভারতবর্ষ  ১৯১৩ সালের জুন মাসে (১ আষাঢ়, ১৩২০) প্রথম প্রকাশিত হয়। ফণীন্দ্রনাথ মুখোপাধ্যায় দীর্ঘ সময় এর সম্পাদনার কাজ করেন। তিনি প্রায় ত্রিশ বছর ভারতবর্ষ পত্রিকার প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান করেছেন।

ভারতবর্ষ প্রথম সংখ্যাতেই বিখ্যাত শিল্পীদের অাঁকা ছয়টি বহুবর্ণ ছবি প্রকাশের মধ্য দিয়ে পাঠক মহলে সাড়া জাগায়। পরবর্তী সময়ে প্রকাশিত সংখ্যাগুলিতে সাহিত্য, বিজ্ঞান, চারুকলা, ধর্ম, দর্শন, ইতিহাস এবং প্রত্নতত্ত্ব বিষয় অন্তর্ভুক্ত হয়। উপন্যাস, ছোটগল্প, নাটক, গীতিকাব্য, ভ্রমণ, ও বই সমালোচনা প্রভৃতি ছিল পত্রিকাটির নিয়মিত পরিবেশনা।

প্রথম সংখ্যা থেকেই পত্রিকাটির অন্যতম জনপ্রিয় বিভাগ ছিল ‘আলোকচিত্র সংক্রান্ত’। এ বিভাগে সম্পাদকীয় মতামতসহ বহু দুর্লভ আলোকচিত্র ছাপানো হতো। সময়ের সাথে সাথে খেলাধুলা, নারী, শিশু, সিনেমা, সাহিত্য-সংবাদ, সাম্প্রতিক খবর (জাতীয় ও আন্তর্জাতিক উভয় পর্যায়ের) এবং কার্টুনসহ বিভিন্ন বিষয় সংযোজিত হতে থাকে। এছাড়াও বই, গ্রামোফোন রেকর্ডসমূহের সমালোচনাও নিয়মিতভাবে পরিবেশন করা হতো।

বাংলা ভাষা ও সাহিত্যের উন্নয়নে ভারতবর্ষ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে।  শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায় (যাঁর অধিকাংশ উপন্যাস এ পত্রিকায় ধারাবাহিকভাবে প্রকাশিত হয়েছিল),  তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়, বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়, বনফুল (বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়), প্রেমেন্দ্র মিত্র, নারায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়, সমরেশ বসু, আশাপূর্ণা দেবী, আনন্দশংকর রায় এবং জসীমউদ্দীন এ পত্রিকায় নিয়মিতভাবে লিখতেন। ভাষাবিদ সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায়, ইতিহাসবিদ রমেশচন্দ্র মজুমদার, প্রত্নতত্ত্ববিদ রাখালদাস বন্দোপাধ্যায়, বিজ্ঞানী প্রফুল্লচন্দ্র রায়মেঘনাদ সাহা, অপরাধতত্ত্ববিদ পঞ্চানন ঘোষাল, জাদুকর পি.সি সরকার প্রমুখ এ পত্রিকায় প্রবন্ধ লিখেছেন। ১৯৬৯-৭০ সালে ভারতবর্ষ পত্রিকার প্রকাশনা বন্ধ হয়ে যায়।

ভারতবর্ষের পূর্ণাঙ্গ অনুক্রমণিকা এখন পর্যন্ত প্রকাশিত না হলেও জনপ্রিয়তার কারণে অনেক প্রন্থাগারেই পত্রিকাটির প্রায় সমস্ত সংখ্যা সংরক্ষিত রয়েছে।  [ইন্দ্রজিৎ চৌধুরী]