বলধা জাদুঘর


বলধা জাদুঘর  ঢাকার ওয়ারীতে খ্রিস্টান কবরস্থানের সন্নিকটে অবস্থিত ১৯২৫ সালে জমিদার নরেন্দ্র নারায়ণ রায় কর্তৃক ‘গৃহ-জাদুঘর’ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৪৪ সালে মৃত্যুকালে উইল সম্পাদনের মাধ্যমে তিনি জমিদারি তহবিল থেকে জাদুঘর ও বাগানের সম্পূর্ণ ব্যয় নির্বাহের ব্যবস্থা করে যান। আবাসিক দালানের প্রথম তলায় ছিল প্রাচীনকালের শিল্পকর্মের প্রদর্শনী। বারান্দায় ছিল দুটি বিশাল কড়াই। দীর্ঘ, আয়তাকার হলঘরে রাখা হয়েছিল মুদ্রা, পুঁতি ও শিল্প বিষয়ক গ্রন্থাবলির একটি মিশ্র সংগ্রহ। দ্বিতীয় কক্ষে গ্রামীণ ও শহুরে জীবনযাত্রার নানা মডেল এবং গজদন্ত ও রুপার ঝালরের কারুকর্ম। তৃতীয় কক্ষে ছিল অস্ত্রশস্ত্রের সমৃদ্ধ সংগ্রহ এবং চতুর্থ কক্ষে প্রবাল ও সামুদ্রিক প্রদর্শনদ্রব্য। এসব সংগ্রহ পরে ঢাকা জাদুঘরে (বর্তমানে বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর) স্থানান্তরিত হয়েছে। প্রায় একই সঙ্গে বলধা গার্ডেন নামে খ্যাত উদ্যানটিরও প্রতিষ্ঠা হয়। আকারে ছোট হলেও আজও সেটি দেশী ও বিদেশী প্রজাতির গাছগাছালির এক অনন্য সংগ্রহ এবং একটি দর্শনীয় স্থান হিসেবে সংরক্ষিত। [এস.এম হুমায়ুন কবির]

আরও দেখুন বলধা গার্ডেন