বলকা খলজী, ইখতিয়ার উদ্দীন


বলকা খলজী, ইখতিয়ার উদ্দীন (১২৩০-১২৩১ খ্রি.)  একজন খলজী অভিজাত এবং দিল্লির সুলতান ইলতুৎমিশের আমলে বাংলার শাসনকর্তা। তাঁর পুরো নাম নাম ইখতিয়ারউদ্দীন বলকা খলজী। বাংলার শাসনকর্তা নাসিরউদ্দীন মাহমুদ এর মৃত্যুর পর নতুন শাসনকর্তা নিযুক্ত না হওয়া পর্যন্ত বাংলার অভ্যন্তরীণ শান্তি রক্ষার জন্য সেনানায়ক দৌলত শাহ বিন মউদুদ সৈন্যবাহিনীর নেতৃত্ব গ্রহণ করেন। তিনি ৬২৭ হিজরিতে (১২২৯-৩০ খ্রি.) সুলতান ইলতুৎমিশের সঙ্গে যৌথ নামে মুদ্রা প্রবর্তন করার ঔদ্ধত্য প্রদর্শন করায় ক্ষুব্ধ হয়ে মালিক ইখতিয়ারউদ্দীন বলকা খলজী বিদ্রোহ করেন এবং দৌলত শাহকে পরাভূত ও হত্যা করে নিজে ক্ষমতা দখল করেন (১২৩০ খ্রি.)। দিল্লির সুলতান ইলতুৎমিশ ১২৩১ খ্রিস্টাব্দে বলকা খলজীর বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করেন। বলকা খলজী সাহসিকতার সঙ্গে দিল্লি বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেন এবং কিছুকাল বন্দিত্ব এড়িয়ে চললেও পরে তিনি বন্দি ও নিহত হন (১২৩১ খ্রি.)। মালিক ইখতিয়ারউদ্দীন বলকা খলজীর পতনের পর বাংলায় খলজী শাসনের অবসান ঘটে এবং তুর্কিদের শাসন শুরু হয়।  [এ.বি.এম শামসুদ্দীন আহমদ]