ফুলকপি


ফুলকপি

ফুলকপি (Cauliflower)  Cruciferae গোত্রের সবজি-ফসল Brassica oleracea var. botrytis

ফুলকপির গোটা মঞ্জরি একটি ঘনবদ্ধ, মাংসল পিন্ড এবং সেটিই সবজি হিসেবে ব্যবহূত হয়। ফুলকপি ভিটামিন ‘এ’, ‘সি’ ও ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ। বাংলাদেশে চাষকৃত প্রায় ৯,৪০০ হেক্টরে ফলন হয় প্রায় ৭৩,০০০ মে টন। সম্ভবত সাইপ্রাসে প্রথম উদ্ভব, পরে ফুলকপির বিস্তার গোটা ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে, বিশেষত ইতালিতে ছড়িয়ে পড়ে। প্রায় ৩০ দিনের চারা রোপণ করা হয় অক্টোবর-নভেম্বরে। এদেশে হেক্টর প্রতি ফলন ২৫-৩০ মে টন।

বাংলাদেশে তিন জাতের ফুলকপির চাষ হয়। আগাম জাত কার্তিকা, পাটনাই, ট্রপিক্যাল-৫৫ ইত্যাদি। মধ্য-মৌসুমি জাতের মধ্যে রয়েছে অগ্রহায়ণী, পৌষালি ও স্নোবল (snowball) এবং নাবি জাতের মধ্যে রয়েছে হোয়াইট মাউন্টেন, মাঘী ও নাবি-রাক্ষসী। ১৯৯৮ সালে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট ‘রূপা’ নামের একটি উচ্চফলনশীল মধ্য-মৌসুমি ফুলকপি উদ্ভাবন করে।

দেশের সর্বত্র চাষ হলেও টাঙ্গাইল জেলায় সবচেয়ে বড়জাতের ফুলকপি জন্মে।  [এস.এম মনোয়ার হোসেন]