পানি সম্পদ পরিকল্পনা সংস্থা


পানি সম্পদ পরিকল্পনা সংস্থা (ওয়ারপো)  পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীন জাতীয় পর্যায়ে বৃহৎ মাত্রায় পানি সম্পদ পরিকল্পনা এবং ব্যবস্থাপনার জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত সরকারের একমাত্র সহায়ক সংস্থা। একটি জাতীয় পানি পরিকল্পনা প্রণয়নের কার্যভার প্রদান করে সরকার ১৯৮৩ সালে মাস্টার প্ল্যান অর্গানাইজেশন (Master Plan Organisation) প্রতিষ্ঠা করে। মাস্টার প্ল্যান অর্গানাইজেশন বা ‘এমপিও’ পরবর্তীতে ১৯৯২ সালে সরকারের ১২ নং অধ্যাদেশ বলে পানি সম্পদ পরিকল্পনা সংস্থা বা ‘ওয়ারপো’-তে পরিণত হয়। ১৯৮৯ সালে প্রতিষ্ঠিত বন্যা পরিকল্পনা সমন্বয়কারী সংস্থাকে (Flood Plan Coordination Organisation) ১৯৯৬-এর জানুয়ারিতে ওয়ারপোর সঙ্গে একীভূত করা হয়। ১৯৯৯ সালে প্রণীত জাতীয় পানি নীতিমালা অনুসারে ওয়ারপোর প্রধান দায়িত্বসমূহ হচ্ছে: ১) জাতীয় পানি সম্পদ পরিষদের নির্বাহী কমিটির নির্বাহী সচিবালয় হিসেবে দায়িত্ব পালন; ২) জাতীয় পানি সম্পদ পরিষদকে প্রশাসনিক, প্রযুক্তিগত এবং আইনগত সহায়তা প্রদান; ৩) পানি সম্পদ এবং সংশ্লিষ্ট ভূমি ও পরিবেশগত ব্যবস্থাপনা বিষয়ে নীতি, পরিকল্পনা এবং নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত বিষয়ে জাতীয় পানি সম্পদ পরিষদকে পরামর্শ প্রদান; ৪) জাতীয় পানি সম্পদ পরিষদ কর্তৃক অনুমোদনের লক্ষ্যে জাতীয় পানি ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনা প্রণয়ন ও নিয়মিত হালনাগাদ করা;  ৫) জাতীয় পানি সম্পদ উপাত্তভিত্তি (Database) এবং তথ্য ব্যবস্থাপনা সিস্টেম গড়ে তোলা ও নিয়মিত হালনাগাদ করা; ৬) বিভিন্ন সংস্থা কর্তৃক চিহ্নিত সকল প্রকার পানি সংক্রান্ত প্রকল্পের ক্ষেত্রে ছাড়পত্র প্রদানকারী কার্যালয়ের ভূমিকা পালন এবং জাতীয় পানি ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনার সঙ্গে এসকল প্রকল্পের সঙ্গতির বিষয়ে জাতীয় পানি সম্পদ পরিষদকে অবহিত করা; ৭) জাতীয় পানি নীতি এবং বাংলাদেশ পানি ও বন্যা ব্যবস্থাপনা কৌশলে বর্ণিত লক্ষ্য ও উদ্দেশ্যসমূহ অর্জনের লক্ষ্যে জাতীয় পানি সম্পদ পরিষদ-এর নির্বাহী কমিটি কর্তৃক নির্দেশিত যে কোন বিশেষ সমীক্ষা কার্যক্রম গ্রহণ এবং ৮) বিভিন্ন সময়ে সরকার কর্তৃক আরোপিত সংশ্লিষ্ট যে কোন ধরনের কার্যক্রম সম্পাদন করা।

ওয়ারপো একটি বহুমাত্রিক সংস্থা যার মোট কর্মী সংখ্যা ৮৭ জন, যাদের মধ্যে ৪২ জন হচ্ছেন কর্মকর্তা ও পেশাজীবী। ওয়ারপো নিয়মিতভাবে বিভিন্ন কারিগরি প্রবন্ধ ও রিপোর্ট প্রকাশ করে থাকে। বর্তমানে সংস্থাটি একটি হালনাগাদ জাতীয় পানি ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনা প্রণয়নের কাজে নিয়োজিত রয়েছে যাতে অন্তর্ভুক্ত থাকবে বিনিয়োগ-তালিকাসহ আঞ্চলিক পানি ব্যবস্থাপনার বিস্তারিত কর্মসূচি। ওয়ারপোর অন্য দুটি গুরুত্বপূর্ণ চলমান কার্যক্রম হচ্ছে জাতীয় পানি সম্পদ উপাত্তভিত্তি (National Water Resources Data Base-NWRD) প্রস্ত্তত করা এবং  গঙ্গা নির্ভরশীল এলাকা (Ganges Dependent Area - GDA) সমীক্ষা। ওয়ারপোর ভবিষ্যৎ প্রকল্পসমূহের মধ্যে রয়েছে সমন্বিত উপকূলীয় অঞ্চল ব্যবস্থাপনা প্রকল্প (Integrated Coastal Zone Management Project)।

জাতীয় পানি সম্পদ উপাত্তভিত্তি প্রায় ৩০০ উপাত্ত স্তর (data layer) ধারণ করে, যার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ উপাত্ত স্তরসমূহ হচ্ছে: ভূ-পৃষ্ঠস্থ জল, ভূগর্ভস্থ জল, মৃত্তিকা ও কৃষি, মৎস্য, বন, আর্থ-সামাজিক, আবহাওয়া, পরিবেশ ও প্রতিচ্ছবি। জাতীয় পানি সম্পদ উপাত্তভিত্তির উপাত্তসমূহকে বিভিন্ন ব্যবহারকারীদের জন্য সহজলভ্য করা হয়েছে।

ওয়ারপো সকল প্রকার পানি খাত পরিকল্পনায় এর ভোক্তাদের অংশগ্রহণকে নিশ্চিত করার ওপর বিশেষ জোর দিয়ে থাকে। সংস্থাটি তার কর্মকান্ড সম্পর্কে সকলকে অবহিত রাখার জন্য ১৯৯৯ সাল থেকে নিজস্ব একটি ওয়েবসাইট পরিচালনা করে আসছে।  [এইচ.এস মোজাদ্দাদ ফারুক]