ন্যাশনাল একাডেমি ফর এডুকেশন ম্যানেজম্যান্ট


ন্যাশনাল একাডেমি ফর এডুকেশন ম্যানেজম্যান্ট ন্যাশনাল একাডেমি ১৯৪৭ সালে ভারত বিভাগের পরপরই তদানীন্তন পাকিস্তান সরকার কর্তৃক সর্বস্তরের শিক্ষা ব্যবস্থার পুনবির্ন্যাসের লক্ষ্যে কয়েকজন শিক্ষাবিদকে ‘শিক্ষা পুনর্বিন্যাস’ নামে একটি পরিকল্পনা তৈরির দায়িত্ব দেওয়া হয়। শিক্ষা পুনর্বিন্যাস প্রকল্প বাস্তবায়নের লক্ষ্যেই মূলত ১৯৫৯ সালে পূর্ব পাকিস্তান শিক্ষা সম্প্রসারণ কেন্দ্র স্থাপিত হয়েছিল। বর্তমান ঢাকা কলেজের পাশে এ কেন্দ্রের ক্যাম্পাসটি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৬২ সালে। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ১৯৭৫ সালে ‘শিক্ষা সম্প্রসারণ কেন্দ্র’-এর নামকরণ হয় বাংলাদেশ শিক্ষা সম্প্রসারণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিরি)।

নায়েম ভবন

শিক্ষা প্রশাসনে নিয়োজিত ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের শিক্ষা প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ে স্বল্পকালীন প্রশিক্ষণদানের জন্য ১৯৮১ সালের জানুয়ারি মাসে প্রতিষ্ঠিত হয় ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব এডুকেশনাল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড রিসার্চ (নিয়েমার)। তবে নিয়েমার একক প্রতিষ্ঠান হিসেবে বেশিদিন ভূমিকা রাখার সুযোগ পায় নি। কারণ ১৯৮২ সালের জুলাই মাসে বিরি ও নিয়েমারকে একীভূত করে গঠিত হয় ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব এডুকেশনাল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন এক্সটেনশন অ্যান্ড রিসার্চ (নিয়েয়ার)।

১৯৯১ সালের জুলাই মাসে জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমী (ন্যাশনাল একাডেমি ফর এডুকেশনাল ম্যানেজমেন্ট) আত্মপ্রকাশ করে। পূর্বতন নিয়েমার-এর কর্মপরিধি পুনর্বিন্যাস, শিক্ষা পরিকল্পনা, প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনা প্রশিক্ষণ প্রদান এবং গবেষণাকার্য পরিচালনার জন্য একটি সর্বোচ্চ প্রতিষ্ঠান গঠনের পরিকল্পনার মূর্ত প্রকাশ আজকের নায়েম।

উদ্দেশ্য জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমী (নায়েম) শিক্ষা পরিকল্পনা, প্রশিক্ষণ, ব্যবস্থাপনা এবং প্রশাসনের উদ্দেশ্যে বিকাশমান একটি শীর্ষ জাতীয় প্রতিষ্ঠান। এর উদ্দেশ্য ও লক্ষ্যের মধ্যে রয়েছে: শিক্ষা ব্যবস্থাপনা ও পরিকল্পনা বিষয়ক বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণ কোর্সের উন্নয়ন, পরিচালনা ও সমন্বয় সাধন; শিক্ষা উন্নয়ন সম্পর্কীয় সমস্যা চিহ্নিতকরণে বিভিন্ন কর্মশালা, সেমিনার ও সভার আয়োজন; শিক্ষা প্রশাসন ব্যবস্থাপনা তথ্য সম্পর্কীয় অধ্যয়ন ও গবেষণার বিষয়ে একটি ডকুমেন্টেশন সেন্টার হিসেবে কাজ করা; বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (শিক্ষা) ক্যাডারের নবীন অফিসারদের বুনিয়াদী প্রশিক্ষণ কোর্সের আয়োজন; শিক্ষা ব্যবস্থাপক ও পরিকল্পনা প্রণেতাদের জন্য প্রতিষ্ঠানকে পরামর্শমূলক ও তত্ত্বাবধানমূলক সেবা প্রদান; যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তাদের নিজস্ব ধারায় প্রশিক্ষণ কর্মকান্ড চালাতে ইচ্ছুক, সেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পরামর্শমূলক ও তত্ত্বাবধানমূলক সেবা প্রদান; এবং অনুরূপ কর্মসূচি বাস্তবায়নে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ের প্রতিষ্ঠান ও এজেন্সিকে সহযোগিতা দান।

প্রশাসনিক কাঠামো জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমী (নায়েম) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি সংযুক্ত বিভাগ। ১৪ সদস্য বিশিষ্ট বোর্ড অব গভর্নর্স এর সার্বিক কার্যক্রম তদারকি করে। বোর্ডের সভাপতি থাকেন শিক্ষামন্ত্রী, সহ-সভাপতি শিক্ষা সচিব এবং নায়েমের মহাপরিচালক থাকেন সদস্য সচিব। মহাপরিচালক নায়েমের নির্বাহী প্রধান। নায়েমের প্রশাসনিক ও একাডেমিক কার্যক্রম পরিচালিত হয় চারটি বিভাগের মাধ্যমে। এই চারটি বিভাগ হলো: পরিকল্পনা ও উন্নয়ন বিভাগ, প্রশিক্ষণ ও বাস্তবায়ন বিভাগ, গবেষণা ও ডকুমেন্টেশন বিভাগ, প্রশাসন ও অর্থ বিভাগ। নায়েমের চারটি বিভাগের জন্য রয়েছেন চারজন পরিচালক, সাতজন উপ-পরিচালক এবং ষোলজন সহকারি পরিচালক। এ ছাড়াও রাজস্ব ও উন্নয়ন বাজেটভুক্ত সিনিয়র লাইব্রেরিয়ান, কম্পিউটার প্রোগ্রামার, মেডিকেল অফিসার, রেজিস্ট্রার, লাইব্রেরিয়ান, হিসাবরক্ষণ অফিসার, ডকুমেন্টেশন অফিসার, সহকারি রেজিস্ট্রার, কম্পিউটার সুপারভাইজার ও দু’জন শরীরচর্চা প্রশিক্ষকসহ ১১ জন কর্মকর্তা ও ১১১ জন কর্মচারী রয়েছেন।

নায়েম কর্তৃক পরিচালিত প্রশিক্ষণ কর্মসূচিসমূহ ফাউন্ডেশন কোর্স: বিসিএস (সাধারণ ও কারিগরি শিক্ষা ক্যাডার) কর্মকর্তাদের জন্য ২/৪ মাস মেয়াদি; এডুকেশন রিসার্চ মেথডোলজি কোর্স: বিসিএস (সাধারণ ও কারিগরি শিক্ষা ক্যাডার) কর্মকর্তাদের জন্য ১ মাস মেয়াদি; শিক্ষা পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কোর্স: সহকারি অধ্যাপক ও সমপর্যায়ের কর্মকর্তাদের জন্য ১ মাস মেয়াদি; শিক্ষা প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনা কোর্স: কলেজ ও সিনিয়র মাদ্রাসার অধ্যক্ষদের জন্য ৩ সপ্তাহ মেয়াদি; শিক্ষা প্রশাসন কোর্স: প্রধান শিক্ষকদের জন্য ৩ সপ্তাহ মেয়াদি; লাইব্রেরি পরিকল্পনা ও ব্যবস্থাপনা কোর্স: কলেজের লাইব্রেরিয়ানদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; শিক্ষা প্রশাসন ও ব্যবস্থাপনা রিফ্রেসার্স কোর্স: কলেজের অধ্যক্ষদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; শিক্ষা প্রশাসন রিফ্রেসার্স কোর্স: প্রধান শিক্ষকদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন ট্রেনিং কোর্স: বিভিন্ন অফিসের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; টট কোর্স: নায়েম, এইচএসটিটিআই, বিএমটিটিআই, টিটিসি ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; সাচিবিকবিদ্যা ও অফিস ব্যবস্থাপনা কোর্স: উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষকদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; কমিউনিকেটিভ ইংলিশ কোর্স: উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষকদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; বিষয়ভিত্তিক পেডাগোজি কোর্স: ১ সপ্তাহ মেয়াদি বিভিন্ন পর্যায়ের শিক্ষকদের জন্য; কমিউনিকেটিভ ইংলিশ কোর্স: মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষকদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন কোর্স: বিভিন্ন কলেজের প্রভাষক ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন ট্রেনিং কোর্স: বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; অফিস ব্যবস্থাপনা ট্রেনিং কোর্স: শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; প্রকল্প ব্যবস্থাপনা ট্রেনিং কোর্স: শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন কর্মকর্তাদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; স্যাটেলাইট ট্রেনিং কোর্স: বিভিন্ন মফস্বল বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জন্য ২ সপ্তাহ মেয়াদি; শিক্ষা ব্যবস্থাপনা উচ্চতর কোর্স (এসিইএম): সহযোগী অধ্যাপক ও সমপর্যায়ের কর্মকর্তাদের জন্য ৬ সপ্তাহ মেয়াদি; এবং সিনিয়র স্টাফ কোর্স: বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ ও অধ্যাপক সমপর্যায়ের কর্মকর্তাদের জন্য। [রামদুলাল রায়]