নজরুল ইনস্টিটিউট


নজরুল ইনস্টিটিউট  জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের স্মৃতি রক্ষার্থে ১৯৮৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে ঢাকার ধানমন্ডিস্থ কবিভবনে সরকার প্রতিষ্ঠিত একটি গবেষণাধর্মী প্রতিষ্ঠান। এর উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য হচ্ছে: ১. কবির রচনাবলি সম্পর্কে ব্যাপক অধ্যয়ন ও গবেষণা করা; ২. তাঁর সঙ্গীতসহ যাবতীয় রচনা সংগ্রহ, সংরক্ষণ, সম্পাদনা ও প্রকাশ করা; ৩. তাঁর সামগ্রিক অবদান সম্পর্কে আলোচনা-সভা, বক্তৃতামালা, সেমিনার, সম্মেলন ইত্যাদির ব্যবস্থা করা; ৪. তাঁর জীবন ও কর্ম সম্পর্কে বইপত্র, গানের রেকর্ড, টেপ, ছবি, ফিল্ম ইত্যাদি নিয়ে গ্রন্থাগার প্রতিষ্ঠা করা; ৫. তাঁর গানের বিকৃতিরোধ এবং সঠিক পরিবেশন ও প্রচারের উদ্দেশ্যে গানের  স্বরলিপি প্রণয়ন, গ্রামোফোন রেকর্ড, টেপরেকর্ড ও ছায়াছবি নির্মাণ ও তদারকি করা; ৬. তাঁর কবিতা আবৃত্তি ও  সঙ্গীত বিষয়ে প্রশিক্ষণ দান এবং ৭. তাঁর সম্পর্কিত গবেষণা ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য লেখকদের পুরস্কার প্রদান। ইনস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক হচ্ছেন এর প্রধান কর্মকর্তা; তাঁকে পরামর্শ দেওয়ার জন্য রয়েছে একটি ট্রাস্টি বোর্ড।

নজরুল ইনস্টিটিউট

নজরুল ইনস্টিটিউট গবেষণা ও প্রকাশনার ক্ষেত্রে ইতোমধ্যে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি সাধন করেছে। নানা প্রকার গবেষণা গ্রন্থ, স্মারকগ্রন্থ, বাংলা ও ইংরেজি পত্রিকা, নজরুলের রচনার নতুন সংস্করণ, শাখাভিত্তিক বিভিন্ন সংকলন, গানের স্বরলিপি, অ্যালবাম, নজরুল-রচনার ইংরেজি অনুবাদ ইত্যাদি নিয়ে ইনস্টিটিউটের প্রকাশনার সংখ্যা বিপুল। স্ত্রী প্রমীলা ও সন্তানসহ নজরুলের ছবি ও নজরুলস্মৃতি সংক্রান্ত ১১০টি চিত্রসহ নজরুল-অ্যালবাম (১৯৯৪) এর একটি উল্লেখযোগ্য প্রকাশনা। সতেরো খন্ডে নজরুলসঙ্গীতের স্বরলিপিও প্রকাশিত হয়েছে। প্রতিষ্ঠা বছরেই নজরুলের গানের বাণী ও সুরের শুদ্ধতা যাচাই করার জন্য বিশেষজ্ঞ সমন্বয়ে একটি ‘নজরুলসঙ্গীত স্বরলিপি প্রমাণীকরণ পরিষদ’ গঠিত হয়। এ পরিষদ প্রধানত মূল গ্রামোফোন রেকর্ডের বাণী ও সুরের সঙ্গে মিলিয়ে নজরুলসঙ্গীতের প্রমাণীকরণের কাজ করে থাকে।

নজরুলসঙ্গীত বিষয়ক একটি উল্লেখযোগ্য গ্রন্থ আদি রেকর্ড-ভিত্তিক নজরুল-সঙ্গীতের নির্বাচিত বাণী সংকলন সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে। একালের শিল্পীদের কণ্ঠে নজরুলের গানের ক্যাসেট বের করে তা প্রচার করাও ইনস্টিটিউটের কার্যক্রমের অন্তর্ভুক্ত। নজরুলসঙ্গীত বিশেষজ্ঞ সুধীন দাশ ও সোহরাব হোসেনের তত্ত্বাবধানে এরূপ চারটি ক্যাসেট প্রকাশিত হয়েছে। তাঁরা ইনস্টিটিউট কর্তৃক পরিচালিত সঙ্গীতশিল্পীদের প্রশিক্ষণও দিয়ে থাকেন।

ইনস্টিটিউটের তত্ত্বাবধানে নজরুলের জীবন ও সাহিত্যকর্ম সংক্রান্ত অনেক দুর্লভ উপাদান সংগৃহীত হয়েছে। সেগুলির মধ্যে কবির দুর্লভ আলোকচিত্র, কবিতার  পান্ডুলিপি, আদি গ্রামোফোন রেকর্ড, মূল্যবান গবেষণা উপকরণ উল্লেখযোগ্য। এতে নজরুলের ব্যক্তিগত জীবন ও সৃষ্টিকর্ম সম্পর্কে নতুন করে গবেষণা করার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। ইনস্টিটিউটের উদ্যোগে ১৯৯৯ সাল নজরুলের জন্মশতবর্ষরূপে পালিত হয়। এ উপলক্ষে সারা বছর বক্তৃতামালা, সেমিনার, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বিভিন্ন প্রকাশনা প্রভৃতি কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়।  [ওয়াকিল আহমদ]