দোয়াব


দোয়াব (Doab)  দুটি নদীর মধ্যবর্তী অঞ্চল, সাধারণত প্রায় একই দিকে প্রবহমান দুটি পাশাপাশি নদী উপত্যকার মধ্যবর্তী অপেক্ষাকৃত উঁচু ভূমি বা শৈলশিরার ভারত উপমহাদেশীয় নাম। ফারসি ‘দো’ শব্দের অর্থ দুই এবং ‘আব’ শব্দের অর্থ পানি; এভাবে দোয়াব শব্দের অর্থ দাঁড়ায় ‘দুই পানি’। উত্তর ভারত এবং বাংলাদেশে বিস্তৃত ইন্দো-গাঙ্গেয় সমভূমির অন্তর্গত অঞ্চলে দুটি নদী সঙ্গমের মধ্যবর্তী নিচু, পলল ভূমিকে বোঝাতে দোয়াব শব্দটি ব্যবহূত হয়ে থাকে। বাংলাদেশে বিশেষভাবে দোয়াব শব্দটি ব্যবহার করে  গঙ্গা এবং  যমুনা নদীদ্বয়ের মধ্যবর্তী ভূখন্ডকে বোঝানো হয়। সাধারণভাবে শব্দটি ক্ষুদ্র ভূ-প্রকৃতির বৈশিষ্ট্যমন্ডিত পলল ভূমি অংশকে বোঝানোর জন্য সংরক্ষিত। বাংলাদেশে দোয়াবের একটি অন্যতম উদাহরণ হচ্ছে মেঘনা-শীতলক্ষ্যা দোয়াব। এ বৃহৎ ভূখন্ডের পশ্চিমে শীতলক্ষ্যা-বংশী দোয়াব অন্তর্ভুক্ত। এ দোয়াব নিচু এবং খুবই উর্বর। ভৌগোলিকভাবে দোয়াবকে আন্তঃপ্রবাহ (Interfluve) নামে আখ্যায়িত করা হয়ে থাকে।  [মোঃ মাহবুব মোর্শেদ]