দুর্গাসাগর


দুর্গাসাগর (Durgasagar) বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলের বৃহত্তম দিঘি, আয়তন প্রায় ২.৫ বর্গ কিমি। বরিশাল শহর থেকে প্রায় ১১ কিলোমিটার দূরে বাবুগঞ্জ উপজেলার অন্তর্গত মাধবপাশা গ্রামে অবস্থিত। স্থানীয়ভাবে এটি মাধবপাশা দিঘি নামেও পরিচিত। চন্দ্রদ্বীপ রাজাদের আমলে রাজা জয়নারায়ণের মাতা রানী দুর্গাবতী ১৭৮০ সালে (বাংলা ১১৮৭ সনে) দিঘিটি খনন করান। প্রাথমিক অবস্থায় ৫০ ফুট বিস্তৃত চারটি পাকা ঘাট নির্মাণ করা হয়েছিল। পরবর্তীতে এগুলো ঘন ঝোপঝাড়ে আবৃত হয়ে পড়ে এবং ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়। ১৯৭৫ সালে সরকারিভাবে দিঘিটির সংস্কার করা হয়। বর্তমানে বরিশাল উন্নয়ন বোর্ড দিঘির রক্ষণাবেক্ষণ করে থাকে। দুর্গাসাগরের চারদিকে নারিকেলের বাগান রয়েছে এবং পুরো এলাকাটি পাকা দেওয়াল দিয়ে ঘেরা। দিঘির দুই তীরে রয়েছে দুটো ফটক এবং কারুকার্য করা দুটি শানবাঁধানো ঘাট। দিঘির মাঝখানে রয়েছে একটি ঢিবি যেটি বিভিন্ন ছোট ছোট গাছপালা দ্বারা আবৃত। প্রতি বছর শীতকালে এখানে অতিথি পাখির আগমন ঘটে। বর্তমানে দিঘি এলাকাকে একটি পিকনিক স্পটে পরিণত করা হয়েছে।  [মোঃ তুহীন মোল্লা]