চৌধুরী, মছলেহ উদ্দীন আহমেদ


মছলেহ উদ্দীন আহমেদ চৌধুরী

চৌধুরী, মছলেহ উদ্দীন আহমেদ (১৯২৪-২০১০)  পশু চিকিৎসা বিজ্ঞানী (Veterinarian) এবং শিক্ষাবিদ। জন্ম ১৯২৪ সালে। সিলেট জেলার গোপালগঞ্জে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে তাঁর জন্ম। মৃত্যু ১৪ আগস্ট ২০১০ খ্রিঃ ঢাকায়। শিক্ষা জীবনে তিনি কলকাতা বেলগাছি ভেটেরিনারি কলেজ হতে ভেটেরিনারি সায়েন্স-এ গ্রাজুয়েশন সম্পন্ন করেন এবং যুক্তরাজ্যের রয়েল ভেটেরিনারি কলেজ হতে এম.আর.সি.ভি.এস. ডিগ্রি অর্জন করেন।

কর্মজীবনে তিনি ১৯৫৩ সালে তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তান ভেটেরিনারি কলেজে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন এবং পরবর্তীতে সেখানে তিনি প্রফেসর পদে উন্নীত হন। ১৯৬১ সালের ১৮ আগস্ট বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠালগ্নেই তিনি এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি অনুষদে প্রফেসর হিসেবে প্রেষণে যোগদান করেন। ১৯৬১ হতে ১৯৬৩ সাল পর্যন্ত তিনি ফার্মাকোলজি বিভাগে এবং ০৬ মার্চ ১৯৬৫ হতে ২২ অক্টোবর ১৯৮০ পর্যন্ত মাইক্রোবায়োলজি অ্যান্ড হাইজিন বিভাগে প্রফেসর এবং বিভাগীয় প্রধান হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক, গবেষক, ভাইস-চ্যান্সেলর, শিক্ষা প্রশাসক এবং বিভিন্ন দায়িত্বে থাকাকালীন কৃষি শিক্ষা, বিশেষত ভেটেরিনারি শিক্ষা ও গবেষণার উন্নয়নে তিনি নিরলসভাবে কাজ করে গেছেন। ২০ নভেম্বর ১৯৬৩ হতে ৫ মার্চ ১৯৬৫ পর্যন্ত এবং ১ জুলাই ১৯৭১ হতে ১৭ জানুয়ারি ১৯৭২ সাল পর্যন্ত সময়কালে তিনি নিজ কর্মস্থল লাইভস্টক ডাইরেক্টরেট-এ কর্মরত ছিলেন। এ দুই মেয়াদ ব্যতীত চাকরির শেষদিন পর্যন্ত তিনি এ বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রেষণে নিয়োজিত ছিলেন।

১৯৭৩ সালের ২৪ নভেম্বর প্রফেসর এম.ইউ আহমেদ চৌধুরী বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ ভাইস-চ্যান্সেলর হিসেবে নিয়োগ লাভ করেন এবং ১৯৮০ সালের অক্টোবর মাস পর্যন্ত সাফল্যের সাথে তিনি এ দায়িত্ব পালন করেন। নন্দিত এই ভাইস-চ্যান্সেলর এ বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষদীয় ডীন ছাড়াও দেশে এবং বহির্বিশ্বের শিক্ষা ও গবেষণা সংক্রান্ত বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদেও দায়িত্ব পালন করেছেন। দেশি-বিদেশি জার্নালে তাঁর বিপুলসংখ্যক বৈজ্ঞানিক নিবন্ধ ও পপুলার আর্টিক্যাল প্রকাশিত হয়েছে। তিনি বাংলাদেশ ভেটেরিনারি কাউন্সিলের সভাপতি এবং কৃষিবিদ বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১০ সালে কৃষি শিক্ষা ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ তিনি কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটশন বাংলাদেশ-এর স্বর্ণপদক লাভ করেন।  [জাহাঙ্গীর আলম]