চৌধুরী, আশরাফ আলী খান


চৌধুরী, আশরাফ আলী খান (১৮৭৮-১৯৪১)  আইনজীবী, রাজনীতিক। তিনি ১৮৭৮ সালে নাটোরে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা খান বাহাদুর এরশাদ আলী খান চৌধুরী ছিলেন বঙ্গীয় ব্যবস্থাপক সভার সদস্য। মাতা মাছিরুন্নেসা খানম ছিলেন শাহজাদপুরের জমিদার কন্যা।

আশরাফ আলী খান ১৯০৯ সালে ব্যারিস্টারি পড়ার জন্য বিলেত যান। ১৯১২ সালে ব্যারিস্টারি পাস করে ফিরে এসে তিনি কোলকাতা হাইকোর্টে আইন ব্যবসা শুরু করেন।

আশরাফ আলী চৌধুরীর রাজনৈতিক জীবনের হাতেখড়ি তাঁর পিতা এরশাদ আলী খান চৌধুরীর কাছে। তবে তাঁর রাজনৈতিক কর্মকান্ডের দিশারী ছিলেন টাঙ্গাইল জেলার ধনবাড়ির জমিদার সৈয়দ নওয়াব আলী চৌধুরী। আশরাফ আলী চৌধুরী ১৯০৫ থেকে ১৯০৯ সাল পর্যন্ত পূর্ববঙ্গ ও আসাম প্রাদেশিক মুসলমান শিক্ষা সমিতি এবং নিখিল ভারত মুসলিম লীগ গঠনে সক্রিয় ভূমিকা রাখেন।

১৯২৮ সালে আশরাফ আলী নাটোর থেকে বঙ্গীয় ব্যবস্থাপক সভার সদস্য নির্বাচিত হন। আইন ব্যবসার সাফল্যের কারণে ১৯৩২ সালে কোলকাতা হাইকোর্টের জজ হিসেবে যোগদানের প্রস্তাব পেলেও রাজনীতির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন হবে ভেবে তিনি উক্ত পদ গ্রহণে সম্মত হন নি। ১৯৩৭ সালে নির্বাচনে তিনি নাটোর থেকে মুসলিম লীগের প্রার্থী হিসেবে বঙ্গীয় আইন পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন। তিনি পরিষদে ডেপুটি স্পিকার নির্বাচিত হন। ১৯৪১ সালের ৮ ডিসেম্বর তিনি কলকাতায় মৃত্যুবরণ করেন  [মাযহারুল ইসলাম তরু]