গোরক্ষবিজয়


গোরক্ষবিজয়  নাথধর্মবিষয়ক আখ্যানকাব্য। যোগিশ্রেষ্ঠ গোরক্ষনাথের জীবন ও আধ্যাত্মিক সাধনার কথা এতে বিবৃত হয়েছে। উজ্জ্বল চারিত্রিক আদর্শের জন্য গোরক্ষনাথ নাথসিদ্ধাদের মধ্যে প্রধান হয়ে ওঠেন এবং সর্বত্র ভক্তি ও সমাদর লাভ করেন। গৌরীর (শিবজায়া) সম্মোহন পরীক্ষায় তিনি অনায়াসে উত্তীর্ণ হন এবং নিজে শিশুসন্তানের ভূমিকা নিয়ে স্ত্রী ও রমণীকুলের আকর্ষণ ও বন্ধন অতিক্রম করে যান। একবার তাঁর গুরু মীননাথ আত্মবিস্মৃত হয়ে কদলী নামক প্রমীলারাজ্যে ষোলোশত রমণীর ভোগচক্রে আবদ্ধ হয়ে পড়েন। তখন গুরুকে উদ্ধারের উদ্দেশ্যে গোরক্ষনাথ নর্তকীর বেশে মৃদঙ্গবোলের সঙ্গত দ্বারা গুরুকে তাঁর যোগশিক্ষা স্মরণ করিয়ে দেন এবং তাঁর চেতনা ফিরিয়ে এনে তাঁকে উদ্ধার করেন। সংক্ষেপে এটাই হলো গোরক্ষবিজয়ের কাহিনী। গোরক্ষবিজয়ের প্রথম রচয়িতা শেখ ফয়জুল্লাহ। তিনি ষোলো শতকের দ্বিতীয় ভাগে আবির্ভূত হন। কাব্যটির হস্তলিখিত একাধিক পুথি পাওয়া গেছে।  [জয়ন্ত বন্দ্যোপাধ্যায়]