খান মুহম্মদ আলী খান


খান মুহম্মদ আলী খান  ছিলেন ঢাকার  নায়েব নাজিম। তাঁর কার্যকাল সুস্পষ্টরূপে জানা যায় না। ১৭১৭ সালের জুলাই মাসে তাঁর প্রতি জারিকৃত মুর্শিদকুলী খানের একটি পরওয়ানায় বিষয়টির প্রথম উল্লেখ পাওয়া যায়। এ পরওয়ানায়  নওয়াব তাঁকে তাঁর অধীনস্থ এলাকায় ইংরেজদের নাজেহাল করা থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেয়া হয়। ১৭১৬ সালের শেষ দিকে বা ১৭১৭ সালের প্রথম দিকে  মুর্শিদকুলী খান বাংলার  সুবাহদার পদে উন্নীত হন। এটা সুস্পষ্ট যে, মুর্শিদকুলী খানের বাংলার সুবাহদারের দায়িত্ব গ্রহণের পর খান মুহম্মদ আলী খান ঢাকার নায়েব নাজিম পদে বহাল হন। রাজস্ব ও প্রশাসনিক রাজধানী  মুর্শিদাবাদ এ স্থানান্তরিত হওয়ার পরও মুর্শিদকুলী খান তার সুবাহর পূর্বাংশের প্রশাসনে অবহেলা করেন নি এবং এ কারণে  ঢাকায় একজন নায়েব নাজিম নিযুক্ত করেন। খান মুহম্মদ আলী খান ছিলেন ঢাকার সম্ভবত প্রথম নায়েব নাজিম।

একজন নায়েব নাজিম সম্পর্কে পরবর্তী উল্লেখ পাওয়া যায় ১৭২৩ সালে। ওই বছর মুর্শিদকুলী খানের আত্মীয় হিশাম খান ঢাকার নায়েব নাজিম ছিলেন। হিশাম খান কখন এ পদ লাভ করেন তাও জানা যায় নি। হিশাম খান সম্ভবত মুহম্মদ আলী খানের স্থলাভিষিক্ত হন।  [কে.এম করিম]