খান, মাহামুদ হুসাইন


খান, মাহামুদ হুসাইন (১৯০৭-?)  শিক্ষাবিদ, রাজনীতিক। ১৯০৭ সালের ১৫ জুলাই ভারতের করিমগঞ্জে তাঁর জন্ম। তিনি দিল্লী বিশ্ববিদ্যালয়, আলীগড় বিশ্ববিদ্যালয় এবং কানাডার অটোয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চশিক্ষা লাভ করেন। তিনি জার্মানির হাইডেলবার্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৩২ সালে পিএইচডি এবং পরে ডি.লিট (অনরিস কসা) ডিগ্রি লাভ করেন।

১৯৩৩ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইতিহাসের রীডার নিযুক্ত হন। তিনি ফজলুল হক মুসলিম হলের প্রাধ্যক্ষ ছিলেন (১৯৪৪)। ১৯৪৮ সালে তাঁকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক নিয়োগ করা হয়। মাহামুদ হুসাইন খান ১৯৪৯ সালে মুসলিম লীগের রাজনীতিতে যোগ দেন। তিনি ওই বছরই পাকিস্তান জাতীয়পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন এবং দলের পার্লামেন্টারি সেক্রেটারি হন। তিনি প্রতিরক্ষা, স্বরাষ্ট্র ও সীমান্ত অঞ্চল বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী (১৯৪৯), পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ বিষয়ক উপমন্ত্রী (১৯৪৯), স্বরাষ্ট্র ও সীমান্ত অঞ্চল বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী (১৯৫০), পাকিস্তানের কাশ্মীর বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী (১৯৫১) এবং শিক্ষামন্ত্রী (১৯৫২-১৯৫৩) ছিলেন।

মাহামুদ হুসাইন খান ১৯৫৩ সালে শিক্ষকতা পেশায় ফিরে আসেন। তিনি ১৯৫৩ সাল থেকে ১৯৬০ সাল পর্যন্ত করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের অধ্যাপক ছিলেন। ১৯৬০ সালের ডিসেম্বর মাসে তাঁকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিয়োগ করা হয়। ১৯৬৩ সালের ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত তিনি এ পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। ১৯৬৩ থেকে ১৯৬৬ সাল পর্যন্ত তিনি হাইডেলবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে দক্ষিণ এশিয়ার ইতিহাসের ভিজিটিং প্রফেসর (১৯৬৩-৬৪), নিউইয়র্কের কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিজিটিং প্রফেসর (১৯৬৪-৬৫) এবং পেনসিলভানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিজিটিং প্রফেসর (১৯৬৫-৬৬) ছিলেন। ১৯৬৬ সালে তিনি করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইতিহাসের অধ্যাপক পদে যোগ দেন এবং পরে ১৯৭১ সাল পর্যন্ত কলা অনুষদের ডীন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭১ সালে তাঁকে করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য নিয়োগ করা হয়।

মাহামুদ হুসাইন খান পাকিস্তান স্টার্লিং ব্যাল্যান্স ডেলিগেশনের সদস্য (১৯৪৮), History of Freedom Movement of the Muslims in Indo-Pakistan Subcontinent গ্রন্থের সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি (১৯৫২), কাউন্সিল অব ন্যাশনাল এডুকেশন-এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি (১৯৫২), পাকিস্তান মুসলিম অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি (১৯৫৫-৫৮), দারুল উলুম ও আরবি মাদ্রাসার জন্য সিলেবাস প্রণয়ন কমিটির চেয়ারম্যান (১৯৬০), পাকিস্তান লাইব্রেরি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি (১৯৫৬-৬৪) এবং জামিআ এডুকেশনাল কোয়ার্টালি-র সম্পাদক (১৯৬০) ছিলেন।

মাহামুদ হুসাইন কয়েকটি গ্রন্থ ও গবেষণামূলক নিবন্ধ রচয়িতা। তাঁর রচিত Quest for Empire (১৯৩৭) সমকালীন ইতিহাসের একটি প্রামাণ্য গ্রন্থ। তাঁর অপর অবদান হলো রুশোর Social Contract ও ম্যাকিয়াভেলির The Prince গ্রন্থের ভূমিকা ও টীকা সম্বলিত উর্দু অনুবাদ।  [মুয়ায্‌যম হুসায়ন খান]