খান, খানবাহাদুর আবদুর রহমান


খান, খানবাহাদুর আবদুর রহমান (১৮৭৮-১৯৩৯)  শিক্ষাবিদ। ১২৮৫ বঙ্গাব্দের ২২ কার্তিক (১৮৭৮ খ্রি) সিরাজগঞ্জের ডুমুর গ্রামে মাতুলালয়ে তাঁর জন্ম। পিতা এবারত আলী খান, মাতা রহিমুন্নেসা। আবদুর রহমান খানের পৈতৃক নিবাস ছিল সিরাজগঞ্জ জেলার মুগবেলাই গ্রামে।

আবদুর রহমান খান নাটোর মহারাজা জগদিন্দ্রনাথ হাইস্কুল থেকে ১৮৯৭ সালে এন্ট্রান্স পাস করেন এবং হাজী মুহম্মদ মহসীন বৃত্তি লাভ করেন। তিনি রাজশাহী কলেজ থেকে ১৮৯৯ সালে এফএ পাশ করেন এবং ১৯০২ সালে রাজশাহী কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। আবদুর রহমান খান খ্যাতনামা ‘গিলক্রিস্ট’ বৃত্তি লাভ করলেও পিতামহের আকস্মিক মৃত্যুর কারণে তাঁর শিক্ষা জীবনের সমাপ্তি ঘটে।

আবদুর রহমান খান ১৯০২ সালে সহকারি শিক্ষক হিসেবে রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলে যোগ দেন। ১৯০৭ সালে তিনি প্রাদেশিক শিক্ষা বিভাগে ডেপুটি ইন্সপেক্টর পদে নিয়োগ লাভ করেন এবং বাকেরগঞ্জে যোগদান করেন। ১৯৩২ সালে তিনি ডিস্ট্রিক্ট ইন্সপেক্টর অব স্কুলস পদে পদোন্নতি পান। পরে তিনি স্কুলসমূহের বিভাগীয় পরিদর্শক পদে উন্নীত হন। এ পদে রাজশাহী ও চট্টগ্রাম বিভাগে দায়িত্ব পালন করে ১৯৩৪ সালে তিনি অবসর গ্রহণ করেন। শিক্ষা প্রশাসনে পেশাগত পারদর্শিতার স্বীকৃতি স্বরূপ ব্রিটিশ সরকার ১৯৩২ সালে তাঁকে ‘খান বাহাদুর’ উপাধিতে ভূষিত করে।

আবদুর রহমান খান বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। নিজ গ্রাম মুগবেলাইয়ে তিনি মুগবেলাই লুৎফিয়া হাইস্কুল প্রতিষ্ঠাসহ প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠার পেছনে অবদান রাখেন। তিনি ছিলেন রাজশাহী মিউনিসিপ্যালিটির কমিশনার ও ঋণ সালিশী বোর্ডের রাজশাহী শাখার সভাপতি।

১৯৩৯ সালের ১৮ জুলাই রাজশাহীতে তাঁর মৃত্যু হয়।  [সাইফুদ্দিন চৌধুরী]