"খানম, আশরাফী"-এর বিভিন্ন সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য


(Added Ennglish article link)
 
(Text replacement - "\[মুয়ায্যম হুসায়ন খান\]" to "[মুয়ায্‌যম হুসায়ন খান]")
 
১ নং লাইন: ১ নং লাইন:
 
[[Category:বাংলাপিডিয়া]]
 
[[Category:বাংলাপিডিয়া]]
'''খানম, আশরাফী'''  প্রথম বাঙালি মুসলমান গায়িকা যাঁর গান গ্রামোফোন ডিস্কে ধারণ করা হয়। মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার পারিল নওহাদ্দা গ্রামে এক জমিদার পরিবারে তাঁর জন্ম। তিনি ছিলেন আলী আহমদ হামিদুল্লাহ খানের (নয়া মিয়া) কন্যা। তাঁর পিতামহ মোয়াজ্জেম হোসেন খান ছিলেন সঙ্গীতানুরাগী। ফলে কৈশোরেই আশরাফী পারিবারিক বলয়ে সঙ্গীতচর্চার অনুকূল পরিবেশ লাভ করেন। বৃহত্তর পরিমন্ডলে সঙ্গীত চর্চার সুযোগ লাভের উদ্দেশ্যে আশরাফী খানম তাঁর ফুফু বেগম বদরুন্নেসা আহমদর সঙ্গে কলকাতায় যান এবং সেখানে একান্তভাবেই নজরুল গীতি অনুশীলনে আত্মনিয়োগ করেন। কলকাতায় তিনি বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের ঘনিষ্ঠ সান্নিধ্যে আসেন এবং তাঁর পৃষ্ঠপোষকতায় আশরাফী তাঁর গান রেকর্ড করার সুযোগ পান। কলকাতার গ্রামোফোন কোম্পানি টুইন ব্রাদার্স কর্তৃক ১৯৩৪ সালে ‘কুমারী বেবী’ ছদ্মনামে তাঁর কণ্ঠে চারটি নজরুল সঙ্গীত গ্রামোফোন ডিস্কে রেকর্ড করা হয়।  [মুয়ায্যম হুসায়ন খান]
+
'''খানম, আশরাফী'''  প্রথম বাঙালি মুসলমান গায়িকা যাঁর গান গ্রামোফোন ডিস্কে ধারণ করা হয়। মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার পারিল নওহাদ্দা গ্রামে এক জমিদার পরিবারে তাঁর জন্ম। তিনি ছিলেন আলী আহমদ হামিদুল্লাহ খানের (নয়া মিয়া) কন্যা। তাঁর পিতামহ মোয়াজ্জেম হোসেন খান ছিলেন সঙ্গীতানুরাগী। ফলে কৈশোরেই আশরাফী পারিবারিক বলয়ে সঙ্গীতচর্চার অনুকূল পরিবেশ লাভ করেন। বৃহত্তর পরিমন্ডলে সঙ্গীত চর্চার সুযোগ লাভের উদ্দেশ্যে আশরাফী খানম তাঁর ফুফু বেগম বদরুন্নেসা আহমদর সঙ্গে কলকাতায় যান এবং সেখানে একান্তভাবেই নজরুল গীতি অনুশীলনে আত্মনিয়োগ করেন। কলকাতায় তিনি বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের ঘনিষ্ঠ সান্নিধ্যে আসেন এবং তাঁর পৃষ্ঠপোষকতায় আশরাফী তাঁর গান রেকর্ড করার সুযোগ পান। কলকাতার গ্রামোফোন কোম্পানি টুইন ব্রাদার্স কর্তৃক ১৯৩৪ সালে ‘কুমারী বেবী’ ছদ্মনামে তাঁর কণ্ঠে চারটি নজরুল সঙ্গীত গ্রামোফোন ডিস্কে রেকর্ড করা হয়।  [মুয়ায্‌যম হুসায়ন খান]
  
 
[[en:Khanam, Ashrafi]]
 
[[en:Khanam, Ashrafi]]

২২:০৯, ১৭ এপ্রিল ২০১৫ তারিখে সম্পাদিত বর্তমান সংস্করণ

খানম, আশরাফী  প্রথম বাঙালি মুসলমান গায়িকা যাঁর গান গ্রামোফোন ডিস্কে ধারণ করা হয়। মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার পারিল নওহাদ্দা গ্রামে এক জমিদার পরিবারে তাঁর জন্ম। তিনি ছিলেন আলী আহমদ হামিদুল্লাহ খানের (নয়া মিয়া) কন্যা। তাঁর পিতামহ মোয়াজ্জেম হোসেন খান ছিলেন সঙ্গীতানুরাগী। ফলে কৈশোরেই আশরাফী পারিবারিক বলয়ে সঙ্গীতচর্চার অনুকূল পরিবেশ লাভ করেন। বৃহত্তর পরিমন্ডলে সঙ্গীত চর্চার সুযোগ লাভের উদ্দেশ্যে আশরাফী খানম তাঁর ফুফু বেগম বদরুন্নেসা আহমদর সঙ্গে কলকাতায় যান এবং সেখানে একান্তভাবেই নজরুল গীতি অনুশীলনে আত্মনিয়োগ করেন। কলকাতায় তিনি বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের ঘনিষ্ঠ সান্নিধ্যে আসেন এবং তাঁর পৃষ্ঠপোষকতায় আশরাফী তাঁর গান রেকর্ড করার সুযোগ পান। কলকাতার গ্রামোফোন কোম্পানি টুইন ব্রাদার্স কর্তৃক ১৯৩৪ সালে ‘কুমারী বেবী’ ছদ্মনামে তাঁর কণ্ঠে চারটি নজরুল সঙ্গীত গ্রামোফোন ডিস্কে রেকর্ড করা হয়।  [মুয়ায্‌যম হুসায়ন খান]