কাশেম, খন্দকার আবুল


কাশেম, খন্দকার আবুল (১৯৪৪-১৯৭১)  শিক্ষাবিদ, শহীদ বুদ্ধিজীবী। জন্ম ১৯৪৪ সালের ৩ জানুয়ারি পাবনা জেলার সাঁথিয়া থানার চোমরপুর গ্রামে। তাঁর পিতার নাম খন্দকার নবাব আলী এবং মাতা সাহেরা খাতুন। আবুল কাশেম ১৯৬০ সালে রাজারহাট হাইস্কুল থেকে ম্যাট্রিকুলেশন পাস করেন। তিনি ১৯৬২ সালে পাবনা এডওয়ার্ড কলেজ থেকে ইন্টারমিডিয়েট এবং ১৯৬৪ সালে একই কলেজ থেকে বিএ পাস করেন। ১৯৬৬ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে বিপিএড ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৬৯ সালে আবুল কাশেম রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাসে এমএ ডিগ্রি লাভ করেন।

আবুল কাশেম ১৯৬৬ সালে পাবনার কাশিনাথপুর এ এল হাইস্কুলে শিক্ষক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। ১৯৭০ সালে তিনি পাবনা এডওয়ার্ড কলেজে ইতিহাসের প্রভাষক হিসেবে যোগ দেন। ওই বছরই জুন-জুলাইয়ে তিনি সাভারে পাকিস্তান ক্যাডেট কোরে ৬ সপ্তাহের সামরিক প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে আবুল কাশেম গ্রামে গিয়ে তরুণদের সংগঠিত করেন এবং প্রতিরোধ যোদ্ধাদের খাদ্য ও রসদ সরবরাহে সহায়তা করেন। ১৯৭১ সালের ৯ সেপ্টেম্বর পাবনা থেকে বাড়ি ফেরার পথে ছোনদহ ব্রিজের কাছে একদল  রাজাকার তাঁকে ধরে নিয়ে যায়। পরে তাঁর আর কোনো খোঁজ পাওয়া যায় নি। খন্দকার আবুল কাশেম পাবনার একজন দক্ষ ক্রীড়াবিদ এবং ক্রীড়া সংগঠক ছিলেন।  [এ.টি.এম যায়েদ হোসেন]