কাউনিয়া থানা


কাউনিয়া থানা (বরিশাল মেট্রোপলিটন)  আয়তন: ১১১.১৬ বর্গ কিমি। অবস্থান: ২২°৩৬´ থেকে ২২°৪৩´ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৯০°২০´ থেকে ৯০°৩১´ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ। সীমানা: উত্তরে মুলাদী উপজেলা, দক্ষিণে কোতোয়ালী ও এয়ারপোর্ট থানা, পূর্বে মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলা এবং পশ্চিমে এয়ারপোর্ট থানা।

জনসংখ্যা ১২৭৩০০; পুরুষ ৬৬২৯৯, মহিলা ৬১০০১। মুসলিম ১১৬৪৫৯, হিন্দু ১০২৩২, বৌদ্ধ ৩০৯, খ্রিস্টান ২১ এবং অন্যান্য ২৭৯।

জলাশয় প্রধান নদী: তেঁতুলিয়া ও বরিশাল।

প্রশাসন বরিশাল সদর উপজেলার ৬টি ওয়ার্ড (১, ২, ৩, ৪, ৫, ৭) এবং এই উপজেলার চরবাড়ীয়া, চরমোনাই ও শায়েস্তাবাদ ইউনিয়ন নিয়ে কাউনিয়া থানা গঠিত হয়।

থানা
ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন মহল্লা জনসংখ্যা ঘনত্ব (প্রতি বর্গ কিমি) শিক্ষার হার (%)
শহর গ্রাম শহর গ্রাম
৫৯ ৪০০৩৬ ৮৭২৬৪ ১১৪৫ ৭০.৮৫ ৫১.৯১
ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন
ওয়ার্ড নম্বর ও ইউনিয়ন আয়তন (বর্গ কিমি) লোকসংখ্যা শিক্ষার হার (%)
পুরুষ মহিলা
ওয়ার্ড  নং ১ ০.৫৬ ৩০৫৮ ২২৬৮ ৬৯.৫৭
ওয়ার্ড  নং ২ ০.৫৯ ২৩৮৩ ১৯৮২ ৬৪.৭১
ওয়ার্ড  নং ৩ ০.৭৩ ৪০৪০ ৩৭১৭ ৭০.৪২
ওয়ার্ড  নং ৪ ০.৫৯ ২৬৯০ ২৪৩৬ ৭৫.৯২
ওয়ার্ড  নং ৫ ০.৪৭ ৪৭১৪ ৪৩৬৫ ৭০.১০
ওয়ার্ড  নং ৭ ০.৫৯ ৪৪১০ ৩৯৭৩ ৭৪.৩৮
চরবাড়ীয়া ইউনিয়ন ৩৪ ২২.৮৮ ১৫৬৫১ ১৫১৭৬ ৫৯.৫৩
শায়েস্তাবাদ ইউনিয়ন ৮৬ ৪১.৯২ ১১৫১৫ ১১০৯৮ ৪৬.৩৯
চরমোনাই ইউনিয়ন ৫১ ৪২.৮৩ ১৭৮৩৮ ১৫৯৮৬ ৪৯.৮৩

সূত্র আদমশুমারি রিপোর্ট ২০০১, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো।

শিক্ষার হার, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড় হার ৬৪.১৩%; পুরুষ ৬৭.১৬%, মহিলা ৬১.১০%। উল্লেখযোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান: ইসলামিয়া কলেজ, বি.পি.এড কলেজ, বেলতলা মাহমুদিয়া মাদ্রাসা।

উল্লেখযোগ্য স্থাপনা তালতলী বন্দর, মহাশ্মশান ঘাট।

উল্লেখযোগ্য প্রতিষ্ঠান  আর আর এফ পুলিশ লাইন, পিডিবি-২।

KauniaThana.jpg

জনগোষ্ঠীর আয়ের প্রধান উৎস কৃষি ২৮.০২%, অকৃষি শ্রমিক ৫.০১%, শিল্প ১.৮৬%, ব্যবসা ২১.৮১%, পরিবহণ ও যোগাযোগ ৫.৫৮%, নির্মাণ ৩.৮০%, ধর্মীয় সেবা ০.২৮%, চাকরি ১৭.৬০%, রেন্ট অ্যান্ড রেমিটেন্স ৩.৪৫% এবং অন্যান্য ১২.৫৯%।

কৃষিভূমির মালিকানা ভূমিমালিক ৫৩.৩৬%, ভূমিহীন ৪৬.৬৪%।

প্রধান ফল-ফলাদিব আম, কাঁঠাল, লিচু, পেঁপে, জাম, নারিকেল, সুপারি।

মৎস্য, গবাদিপশু ও হাঁস-মুরগির খামার এ থানায় মৎস্য, গবাদিপশু ও হাঁস-মুরগির খামার রয়েছে।

বিলুপ্ত বা বিলুপ্তপ্রায় সনাতন বাহন পাল্কি, গরু ও ঘোড়ার গাড়ি।

শিল্প ও কলকারখানা বিসিক শিল্পনগরী, খান সন্স টেক্সটাইল, লঞ্চ তৈরির ডক ইয়ার্ড।

কুটিরশিল্প স্বর্ণশিল্প, লৌহশিল্প, কাঠের কাজ।

বিদ্যুৎ ব্যবহার এ থানার সবক’টি মহল্লা ও মৌজা বিদ্যুতায়ন কর্মসূচির আওতাধীন। তবে ৫৩.৯১% পরিবারের বিদ্যুৎ ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে।

পানীয়জলের উৎস নলকূপ ৭৩.০৫%, পুকুর ৫.১৪%, ট্যাপ ১৬.৩৪% এবং অন্যান্য ৫.৪৭%।

স্যানিটেশন ব্যবস্থা এ থানার ৫৪.৪৮% পরিবার স্বাস্থ্যকর এবং ৩৮.২৮% পরিবার অস্বাস্থ্যকর ল্যাট্রিন ব্যবহার করে। ৭.২৪% পরিবারের কোনো ল্যাট্রিন সুবিধা নেই।

স্বাস্থ্যকেন্দ্র টিবি হাসপাতাল, রেডক্রিসেন্ট হাসপাতাল উল্লেখযোগ্য।  [আক্তারউদ্দিন চৌধুরী]

তথ্যসূত্র আদমশুমারি রিপোর্ট ২০০১, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো; কাউনিয়া থানা মাঠ পর্যায়ের প্রতিবেদন ২০১০।