কন্ডেনসেট


কন্ডেনসেট (Condensate)  বর্ণহীন অথবা ঈষৎ হলুদ বর্ণের তরল হাইড্রোকার্বন।  প্রাকৃতিক গ্যাস উৎপাদনকালে ভূগর্ভ থেকে গ্যাসের সঙ্গে কন্ডেনসেট বেরিয়ে আসে। বেশিরভাগ কন্ডেনসেটই হাল্কা গ্যাসোলিন পরিসরে (বিউটেন, পেন্টেন ও হেক্সেন) বিদ্যমান সম্পৃক্ত  হাইড্রোকার্বন দ্বারা গঠিত। সাধারণভাবে কন্ডেনসেটের রয়েছে ৫৫°-এর অধিক এ.পি.আই আপেক্ষিক গুরুত্ব (API gravity or American Petroleum Institute gravity)। গ্যাসক্ষেত্র থেকে উৎপাদিত গ্যাসের সঙ্গে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে কন্ডেনসেট আহরিত হলে ওই গ্যাসকে ভেজা গ্যাস হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।

বাংলাদেশে আবিষ্কৃত গ্যাসক্ষেত্রগুলোর মধ্যে ৭টি গ্যাসক্ষেত্রকে গ্যাস-কন্ডেনসেট ক্ষেত্র হিসেবে অভিহিত করা হয়। এগুলি থেকে প্রতিদিন প্রায় ১,৩২৫ ব্যারেল কন্ডেনসেট উৎপাদিত হয় এবং কন্ডেনসেটের মোট মজুত প্রায় ৬৪.৬৯ মিলিয়ন ব্যারেল। এর মধ্যে বিয়ানীবাজার (১.৮২ মিলিয়ন ব্যারেল), কৈলাসটিলা (২৬.৯ মিলিয়ন ব্যারেল), জালালাবাদ (১৫.৭৫ মিলিয়ন ব্যারেল), রশিদপুর (৪.০ মিলিয়ন ব্যারেল), ফেনী (৮.২৩ মিলিয়ন ব্যারেল), বাখরাবাদ (২.০৮ মিলিয়ন ব্যারেল), তিতাস (৩.০২ মিলিয়ন ব্যারেল), সিলেট (০.৮৯ মিলিয়ন ব্যারেল), ফেঞ্চুগঞ্জ (০.৫২ মিলিয়ন ব্যারেল), বেলাবো (০.৩১ মিলিয়ন ব্যারেল), মেঘনা (০.২১ মিলিয়ন ব্যারেল) এবং হবিগঞ্জ (০.০৮ মিলিয়ন ব্যারেল) উল্লেখযোগ্য কন্ডেনসেট সঞ্চয়ক্ষেত্র। প্রধান প্রধান কন্ডেনসেট উৎপাদনক্ষেত্র হলো কৈলাসটিলা, রশিদপুর, জালালাবাদ, হবিগঞ্জ এবং বিয়ানীবাজার। আবিষ্কারক কোম্পানি শেভরন বিবিয়ানা এবং মৌলভীবাজার গ্যাসক্ষেত্র দু’টিতেও কন্ডেনসেটের উল্লেখযোগ্য সঞ্চয় রয়েছে বলে তথ্য প্রকাশ করেছে।

গ্যাসক্ষেত্র থেকে উৎপাদিত কন্ডেনসেট প্রক্রিয়াকরণ প্লান্টে পরিশোধন করা হয়। আনুমানিক প্রায় ৩৮,০০০ টন কন্ডেনসেট প্রতি বছর বিভিন্ন গ্যাসক্ষেত্র থেকে ইস্টার্ন রিফাইনারীতে পরিশোধিত পেট্রোলিয়াম উৎপাদনের জন্য সরবরাহ করা হয়। গ্যাসক্ষেত্রসমূহ থেকে উৎপাদিত কন্ডেনসেট ২০০ কিমি দীর্ঘ এবং ৬´´ ব্যাস বিশিষ্ট পাইপলাইনযোগে আশুগঞ্জ রূপান্তরিত প্রাকৃতিক গ্যাস কো. লিমিটেডডের স্টোরেজ ট্যাংক পর্যন্ত পরিবাহিত হয়। সেখান থেকে পরবর্তী সময়ে চট্টগ্রামের ইস্টার্ন রিফাইনারী পর্যন্ত বার্জযোগে কন্ডেনসেট পরিবহণ করা হয়।

বর্তমানে পদ্মা, মেঘনা এবং যমুনা তেল বাজারতাককরণ কোম্পানিগুলো আশুগঞ্জ হতে জাহাজযোগে ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেড পর্যন্ত কন্ডেনসেট পরিবহনের কাজটি করছে। বাখরাবাদ, হবিগঞ্জ, নরসিংদী, মেঘনা, মালদা এবং ফেঞ্চুগঞ্জ গ্যাসক্ষেত্রসমূহে উৎপাদিত কন্ডেনসেটকে আংশিক পাতন প্রক্রিয়ায় মোটর স্পিরিট, পেট্রোল এবং ডিজেলজাতীয় পেট্রোলিয়াম দ্রব্যাদি আহরণ হয় এবং মেঘনা পেট্রোলিয়াম লিমিটেড সেগুলো বাজারজাত করে। [সানজিদা মুর্শেদ ও মুশফিকুর রহমান]