একাদশী


একাদশী  একটি বিশেষ তিথি। শুক্ল ও কৃষ্ণপক্ষের একাদশী তিথি পুণ্যতিথি হিসেবে বিবেচিত। হিন্দুধর্মমতে এদিন বিধবাদের, বিশেষত উচ্চবর্ণীয় বিধবাদের নিরম্বু  উপবাস বিহিত। অবশ্য বর্ণ ও লিঙ্গনির্বিশেষে যে কেউ একাদশী পালন করতে পারে। এ সময় সাধারণত ফলমূল, তবে প্রয়োজনে রাত্রিবেলা আতপ চালের ভাত খাওয়া বিধেয়। বিষ্ণুর শয়ন, পার্শ্ব পরিবর্তন ও উত্থান উপলক্ষে যথাক্রমে আষাঢ়, ভাদ্র ও কার্তিক মাসের শুক্লা একাদশী বিশেষ শুভপ্রদ। ভৈমী একাদশী ও মাঘের শুক্লা একাদশীকেও বিশেষ মাহাত্ম্যপূর্ণ বলে মনে করা হয়। নিয়মিত একাদশী পালন শরীরের পক্ষেও উপকারী। তাই স্বাস্থ্যগত কারণেও অনেকে প্রতি মাসে দুটি একাদশী তিথি পালন করেন। রঘুনন্দনের একাদশীতত্ত্ব এ বিষয়ে একখানি প্রামাণ্য গ্রন্থ হিসেবে বিবেচিত।  [সুরেশচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়]