একজিমা


একজিমা (Eczema)  এক ধরনের চর্মরোগ। এ রোগের কারণে পীড়কা, ফুসকুড়ি, ত্বকের উপরিভাগে অতিক্ষুদ্র গুটিকাস্তর, অথবা সবগুলি মিলিয়ে তীব্র অথবা বহুদিন স্থায়ী ত্বকীয় প্রদাহজনিত অবস্থা সৃষ্টি হয়। ত্বকের এ ধরনের ব্যাধি অ্যালার্জিজনিত অতিসংবেদনশীল প্রতিক্রিয়ারই ফল যা প্রাথমিকভাবে প্রদাহ, চুলকানি এবং ত্বকের বাইরের দিকে অতিক্ষুদ্র গুটিকারূপে প্রকাশ পায়। একজিমা শুকনা ধরনের কিংবা সেখান থেকে রস নিঃসৃত হতে পারে এবং এর সঙ্গে বিভিন্নমাত্রার উপদাহ অথবা জ্বালাও থাকতে পারে। বাংলাদেশে শিশুদের প্রায়ই এ রোগ হতে দেখা যায় এবং কমপক্ষে প্রায় অর্ধেক ক্ষেত্রে শিশুর ১৮ মাস বয়সের মধ্যেই তা সেরে যায়। কোনো কোনো ক্ষেত্রে রোগীর পারিবারিক ইতিহাসে হাঁপানি, হে-ফিভার (hay fever), একজিমা, সোরিয়াসিস (psoriasis) অথবা অন্যান্য অ্যালার্জিজনিত অস্বাভাবিকতার সন্ধান পাওয়া যায়। বয়স্কদের ক্ষেত্রে এটি সাধারণত দীর্ঘস্থায়ী অথবা পুনরাবৃত্ত রোগ হিসেবে দেখা দেয়।

একজিমার একটি রূপ স্নায়ুতান্ত্রিক উত্তেজনার ফলে সৃষ্ট ঘা (neurodermatitis) যা বার বার অাঁচড়ানো-চুলকানোর মাধ্যমে শরীরে প্রকাশ পায়। যদিও মানসিক চাপের সময় এর লক্ষণগুলি প্রকাশ পায় তবুও এ ধরনের রোগীর স্নায়ুতন্তুতে শারীরবৃত্তিয় পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়।

অ্যালার্জির মতো অতিসংবেদনশীল প্রতিক্রিয়া ত্বকে দীর্ঘস্থায়ী প্রদাহ তৈরি করে। এ প্রদাহ পরবর্তী সময়ে চামড়ার উপরে অতিক্ষুদ্র গুটিকা এবং চুলকানি সৃষ্টি করে। ক্রমাগত উপদাহ এবং অাঁচড়ানোর ফলে ত্বক পুরু হয়ে যায় এবং শক্ত বুনট চামড়ার আকৃতি ধারণ করে।

একজিমার অবস্থার ওপর নির্ভর করে চিকিৎসা নির্ধারণ করা হয়। রসযুক্ত তীব্র ঘা, শুকনা খোসায় গুটিকা অথবা দীর্ঘস্থায়ী শুকনা পুরুস্তরবিশিষ্ট ঘা, প্রতিটির চিকিৎসা ভিন্নরকম হয়ে থাকে। [মোঃ শহীদুল্লাহ]

আরও দেখুন অ্যালার্জি; হাঁপানি