ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেড


ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেড  বাংলাদেশের একমাত্র জ্বালানি তেল পরিশোধন স্থাপনা,  বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন (বিপিসি)-এর অঙ্গ প্রতিষ্ঠান এবং একটি পাবলিক লিমিটেড কোম্পানি। কোম্পানি আইন ১৯১৩ (সংশোধিত, ১৯৯৪) অনুযায়ী এ প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম পরিচালিত হয়। একদল পাকিস্তানি শিল্প-উদ্যোক্তা ১৯৬৩ সালে এ প্রকল্পটির উদ্যোগ নেয় এবং চট্টগ্রাম শহরের প্রান্তে  কর্ণফুলি নদীর তীরে ১৫ কোটি ১৭ লক্ষ টাকা প্রারম্ভিক ব্যয়ের মাধ্যমে এ পরিশোধনাগারটি প্রতিষ্ঠিত হয়। ১৯৬৮ সাল থেকে পরিশোধন কেন্দ্রটিতে উৎপাদন কার্যক্রম শুরু হয়। ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেড তাদের নিজস্ব পরিশোধন ইউনিটের মাধ্যমে অপরিশোধিত তেল শোধিত করে থাকে। এই শোধনাগারে আরও রয়েছে অনুঘটক পুনর্গঠন ইউনিট, এ্যাসফালটিক বিটুমিন প্ল্যান্ট এবং মৃদু হাইড্রোক্রাকিং ইউনিট। প্রতিদিন ৩৪,০০০ ব্যারেল অর্থাৎ বৎসরে ৩ কোটি ১৫ লক্ষ টন অপরিশোধিত তেল পরিশোধনের ক্ষমতা রয়েছে এ পরিশোধনাগারটির।

ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেড (ই.আর.এল) প্রধানত একটি জ্বালানি তেল পরিশোধনাগার। তবে পেট্রোলিয়াম সামগ্রীর পাশাপাশি অ-জ্বালানি ধরনের কিছু দ্রব্যও উৎপাদন করে যা বিভিন্ন শিল্পে ব্যবহূত হয়। বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের সাথে চুক্তির ভিত্তিতে ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেড দেশে আমদানিকৃত অপরিশোধিত তেল পরিশোধনের কাজ করে থাকে এবং তেল পরিশোধন প্রক্রিয়ায় উৎপন্ন প্রেট্রোলিয়ামজাত দ্রব্যসামগ্রী বিপিসি নিয়ন্ত্রণাধীন ছোট কোম্পানিগুলির কাছে বাজারজাতকরণের সরবরাহ করে। ই.আর.এল প্রধানত দু ধরনের অপরিশোধিত তেল প্রক্রিয়াজাত করে সৌদি আরব থেকে আমদানীকৃত আরবীয় হালকা অপরিশোধিত তেল (Arabian Light Crude - ALC) এবং আবুধাবী থেকে আমদানীকৃত মারবান অপরিশোধিত তেল (Murban Crude)। হরিপুর তেল ক্ষেত্র থেকে উত্তোলিত স্বল্প পরিমাণ তেলও (প্রতিদিন প্রায় ২০০-২৫০ ব্যারেল) এখানে পরিশোধন করা হয়ে থাকে। তবে ১৯৯৪ সনের জুলাই মাস থেকে হরিপুর তেলক্ষেত্রে তেল উৎপাদন স্থগিত রয়েছে। ই.আর.এল কনডেনসেট প্রক্রিয়াজাতকরণও করে থাকে।

ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেডের কার্যক্রম নিম্নরূপ:

‘ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেড’ তাদের সংগ্রাহক ট্যাংকে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন কর্তৃক আমদানিকৃত অপরিশোধিত তেল ধারণ করে।

তেল প্রক্রিয়াজাতকরণের মাধ্যমে উৎপাদিত পেট্রোলিয়াম দ্রব্যসামগ্রী বিপিসি নিয়ন্ত্রনাধীন ছোট কোম্পানিগুলিতে পাইপলাইনের মাধ্যমে সরবরাহ করে।

আমদানীকৃত মোটর গ্যাসোলিন এবং ডিজেল সংগ্রাহক ট্যাংকে ধারণ করে এবং প্রক্রিয়াকরণ করে বাজারজাতকারক কোম্পানিগুলিকে সরবরাহ করে।

শোধনাগারটির কার্যক্রম অব্যাহত রাখার নিমিত্তে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি, রাসায়নিক পদার্থ ইত্যাদির মজুদ নিশ্চিত করে।

পরিশোধন কার্যক্রমকে আরও উন্নত করার লক্ষ্যে বিভিন্ন উপযোগী উন্নয়ন প্রকল্পের পরিকল্পনাগ্রহণ ও তার বাস্তবায়ন করে থাকে।

ইস্টার্ন রিফাইনারি লিমিটেড মোট ১৭ ধরনের পেট্রোলিয়াম সামগ্রী উৎপাদন করে থাকে। এর মধ্যে আর.জি (পরিশোধিত গ্যাস), এল.পি.জি (তরলীকৃত পেট্রোলিয়াম গ্যাস), বিশেষ ধরনের স্ফুটনাঙ্ক দ্রাবক- এস.পি.বি (Special Boiling Point Solvent), মটর স্পিরিট, ন্যাপথা, উন্নততর কেরোসিন তেল- এস.কে.ও, খনিজ তারপিন, জে.পি-১, জুট বাথিং অয়েল, এইচ.এস.ডি (হাই স্পিড ডিজেল), নিম্নমাত্রার সালফারযুক্ত ডিজেল- এল.এস.ডি.ও, হালকা ডিজেল তেল (এল.ডি.ও), উচ্চমাত্রার সালফারযুক্ত জ্বালানি তেল (এইচ.এস.এফ.ও), নিম্ন মাত্রার সালফারযুক্ত ফার্নেস তেল (এল.এস.এফ.ও) এবং বিটুমিন উল্লেখযোগ্য। এর মধ্যে অ-জ্বালানি ধরনের দ্রব্যগুলি হলো এস.বি.পি, জুট বাথিং অয়েল, খনিজ তারপিন এবং বিটুমিন। ইস্টার্ন রিফাইনারিতে উৎপাদিত পণ্যগুলির কিছু কিছু শুধু চাহিদা অনুযায়ী উৎপাদিত হয়।

[রফিকুল ইসলাম ও সানজিদা মূর্শেদ]