আশরাফপুর


আশরাফপুর  নরসিংদী জেলার শিবপুর উপজেলায় অবস্থিত একটি প্রত্নসমৃদ্ধ গ্রাম। ১৮৮৫ সালে জনৈক মিঞা বকস্ খাঁ এ গ্রামের একটি উঁচু ভূমি থেকে খ্রিস্টীয় সাত শতকের দুটি তাম্রশাসন উদ্ধার করেন। লিপির পাঠ অনুযায়ী খড়্গ বংশীয় রাজা দেব খড়্গ কর্তৃক বৌদ্ধ সংঘ ও বিহারের জন্য ভূমি দানের উল্লেখ রয়েছে। এখানে মাটির নিচে প্রাচীন ইট ও প্রাচীরের ধ্বংসাবশেষ রয়েছে। পরবর্তীকালে এ স্থানে লোকজন বসতি স্থাপন করায় পরিকল্পিত কোনো খনন কার্য চালানো সম্ভব হয় নি। বিশেষজ্ঞদের ধারণা এখানে বৌদ্ধ বিহার এবং ধর্ম ও জ্ঞান চর্চার কেন্দ্র ছিল।

এ গ্রামে দিলওয়ার খান কর্তৃক ১৫২৪ খ্রিস্টাব্দে (৯৩০ হি.) নির্মিত একটি মসজিদ রয়েছে। তুগরা রীতিতে উৎকীর্ণ মসজিদের একটি শিলালিপি বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর, ঢাকায় সংরক্ষিত। লিপির পাঠ অনুযায়ী বাংলার সুলতান নাসিরউদ্দীন আবুল মুজাফফর নুসরাত শাহ’র রাজত্বকালে (১৫১৯-৩২ খ্রিস্টাব্দ) দিলওয়ার খান কর্তৃক ৯৩০ হিজরিতে মসজিদটি নির্মিত। বহুকাল ধরে সংস্কারের অভাবে মসজিদটি ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছিল। ১৮৯৭ সালের ভূমিকম্পে ধ্বংস হয়ে এটি সম্পূর্ণ পরিত্যক্ত হয় এবং কালক্রমে জঙ্গলাবৃত হয়ে পড়ে। ১৯৪০ সালে মওলানা সৈয়দ আলীর নেতৃত্বে জঙ্গল পরিষ্কার করে মসজিদটি উদ্ধার করা হয়। তখনও মিহরাব ও দেওয়ালের কিছু অংশ টিকে ছিল। সুলতানি আমলের স্থাপত্য কৌশল ও নির্মাণ শৈলী অবলম্বনে নির্মিত এটি একটি এক গম্বুজ বিশিষ্ট ছোট মসজিদ। পরবর্তীকালে একই স্থানে তিন গম্বুজ বিশিষ্ট একটি নতুন মসজিদ নির্মিত হয়েছে।  [মোঃ ইফতেখার উদ্দিন ভূঞা]