আলী রজা


আলী রজা (১৮শ শতক)  সাধক কবি।  চট্টগ্রাম জেলার ওশখাইন গ্রামে তাঁর জন্ম। সেখানে এখনও তাঁর বসতবাড়ি, সমাধি, দরগাহ ও বংশধররা রয়েছেন। আলী রজা সুফি ভাবধারার তত্ত্বকথা ও পদাবলি রচনা করেন। শাহ কিয়ামউদ্দীন ছিলেন তাঁর পীর। সুফিসাধনায় তিনি সিদ্ধিলাভ করেন; এজন্য সাধারণের নিকট তিনি ‘কানু ফকির’ নামে পরিচিত ছিলেন। তাঁর বহু শিষ্য ছিল। মৃগাবতী কাব্যের রচয়িতা  মুহম্মদ মুকিম ছিলেন তাঁদের অন্যতম। পীরের নির্দেশেই তিনি কাব্যখানি রচনা করেন।

আলী রজার তত্ত্ববিষয়ক কাব্যগুলি হলো: সিরাজ কুলুব, জ্ঞানসাগর, আগম, ধ্যানমালা, যোগকালন্দর ও ষট্চক্রভেদ। এগুলিতে সুফি যোগসাধনা ও হিন্দুতন্ত্রের কথা আছে। তিনি কবিত্বশক্তির অধিকারী ছিলেন বলে কাব্যগুলিতে শুষ্ক তত্ত্বকথার বিষয়ও কাব্যরসপূর্ণ হয়েছে।

আলী রজা একজন সঙ্গীতজ্ঞও ছিলেন। তাঁর ধ্যানমালা একখানা সঙ্গীতবিষয়ক কাব্য। তিনি সুফিতত্ত্বের বহুসংখ্যক পদ রচনা করেন।  আহমদ শরীফ সম্পাদিত মুসলিম কবির পদসাহিত্য (১৯৬১) গ্রন্থে আলী রজার বত্রিশটি পদ সংকলিত হয়েছে। পদগুলি উচ্চ কবিত্বশক্তির পরিচয় বহন করে। প্রতিটি পদের শীর্ষে রাগ-রাগিণীর উল্লেখ আছে। পদগুলিতে সুফিভাবের কথা সরাসরি বলা হয়েছে, আবার রাধাকৃষ্ণের প্রেমের রূপকও আছে। কোনো কোনো পদে কালিকাদেবীর প্রসঙ্গও আছে। এতে তাঁর অসাম্প্রদায়িক মুক্ত মনের পরিচয় পাওয়া যায়। আলী রজা হিন্দু-মুসলমান সংস্কৃতির মিলনপ্রত্যাশী ছিলেন।  [ওয়াকিল আহমদ]