আরতি


আরতি  হিন্দুদের দেবপূজার অঙ্গবিশেষ। দেবমূর্তি বরণ উপলক্ষে এর আয়োজন করা হয়। এতে দেবমূর্তির সামনে ধূপধুনা, প্রদীপ প্রভৃতি হাতে নিয়ে বিচিত্র ভঙ্গিতে ঘোরানো হয়। আরতির উপকরণগুলি হচ্ছে দীপমালা বা পঞ্চপ্রদীপ, জলপূর্ণ শঙ্খ, বস্ত্র (গামছা), আম্রপল্লব, পুষ্প, পাখা, ধূপধুনা, কর্পূরদীপ ইত্যাদি। ধূপধুনা প্রভৃতি উপকরণ বিশেষভাবে নির্মিত মৃণ্ময় বা ধাতব পাত্রে নিয়ে প্রথমে দেবতার পদতলে চারবার, পরে নাভিদেশে দুবার, মুখমন্ডলে তিনবার এবং সর্বাঙ্গে সাতবার ঘোরাতে হয়। এ সময় স্তোত্রাদি পাঠ ও শাঁখ, কাঁসর, ঢাক-ঢোল প্রভৃতি বাদ্য বাজানো হয় এবং বাজনার তালে তালে হেলেদুলে নেচেনেচে আরতি করা হয়। এ উপলক্ষে কেউ কেউ অসাধারণ আঙ্গিক অভিনয়ও প্রদর্শন করে। কখনও কখনও প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয় এবং বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। দেবতার সামনে সাষ্টাঙ্গ প্রণিপাত করে আরতি শেষ করতে হয়। স্থানভেদে আরতিকে আরাত্রিক, নীরাজন, নির্মন্থন ইত্যাদি নামেও অভিহিত করা হয়।  [অঞ্জলিকা মুখোপাধ্যায়]